Inqilab Logo

শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৮ মাঘ ১৪২৮, ১৮ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

জেগে উঠেছে ইন্দোনেশিয়ার সেমেরু আগ্নেয়গিরি, এলাকা ছাড়ছে গ্রামবাসী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ ডিসেম্বর, ২০২১, ৭:২৪ পিএম

ইন্দোনেশিয়ার সেমেরু আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাত ঘটেছে। আগ্নেয়গিরির জ্বালামুখ থেকে বেড়িয়ে আসা ধোয়া এবং ছাই জাভা দ্বীপের আকাশে ছড়িয়ে পড়েছে। এতে আশেপাশের বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। শনিবার (৪ ডিসেম্বর) অগ্ন্যুৎপাতের ঘটনায় হতাহতের তাৎক্ষণিক কোনো খবর পাওয়া যায়নি।
দেশটির দুর্যোগ প্রশমন সংস্থা (বিএনপিবি) ইতিমধ্যে কিছু ভিডিও শেয়ার করেছে। সেখানে দেখা গেছে, পূর্ব জাভা প্রদেশের লুমাজাং জেলার আশেপাশের কয়েকটি গ্রাম প্রচÐ ধোঁয়া এবং ছাইয়ে ঢেকে গেছে এবং আতঙ্কিত বাসিন্দারা দৌড়ে পালাচ্ছে।
লুমাজাং জেলা প্রধান থরিকুল গণমাধ্যমে বলেছেন, হঠাৎ অগ্ন্যুৎপাতের সাথে একটি বজ্রঝড় এবং বৃষ্টি হয়েছিল। যা লাভা এবং ধোঁয়াটে ধ্বংসাবশেষকে ঠেলে দিয়েছিল এবং পুরু কাদা তৈরি করেছিল। যা প্রোনোজিও এবং কান্দিপুরোর দুটি প্রধান গ্রামের সংযোগকারী অন্তত একটি সেতু ধ্বংস করেছে।
তিনি আরও বলেন, ‘ঘন ধোয়া বেশ কয়েকটি গ্রামকে অন্ধকারে পরিণত করেছে’। কয়েক শতাধিক বাসিন্দাদের অস্থায়ী আশ্রয়ে স্থানান্তরিত করা হয়েছে এবং বাকিরা নিরাপদ এলাকায় চলে গেছে।
এদিকে স্থানীয় টেলিভিশনের প্রতিবেদনে দেখা গেছে, আগ্নেয়গিরির ধূলিকণা মিশ্রিত বৃষ্টিতে ভিজে সেখানের স্থানীয় বাসিন্দারা মেঘের মত দেখতে ছাই নিয়ে আতঙ্কে দৌড়াচ্ছে।
৩৬৭৮ মিটার সেমেরু আগ্নেয়গিরি সর্বশেষ জানুয়ারি মাসে দেশের সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ দ্বীপে বিস্ফোরিত হয়েছিল। যদিও তখন কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। দ্বীপপুঞ্জ দেশ ইন্দোনেশিয়ায় ২৭০ মিলিয়ন লোকের বসবাস। এটি প্রশান্ত মহাসাগরীয় "রিং অফ ফায়ার" বরাবর অবস্থিত হওয়ায় ভূমিকম্প এবং আগ্নেয়গিরির কার্যকলাপের প্রবণতা অধিক। দেশটিতে প্রায় ১২৮টি আগ্নেয়গিরি রয়েছে। সূত্র : এএফপি



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইন্দোনেশিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ