Inqilab Logo

বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮, ২২ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

অস্ট্রেলিয়ার ঘোষণায় হিজবুল্লাহর কিছুই হবে না : হাসান নাসরুল্লাহ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ ডিসেম্বর, ২০২১, ১১:১৩ পিএম

লেবাননের হিজবুল্লাহ মহাসচিব সাইয়েদ হাসান নাসরুল্লাহ বলেছেন, অস্ট্রেলিয়া প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহকে 'সন্ত্রাসী সংগঠন' হিসেবে চিহ্নিত করলেও তাতে সংগঠনটিতে কোনো প্রভাব পড়বে না। লেবানন যতদিন ইসরায়েলের ক্রমাগত হুমকির মধ্যে থাকবে, ততদিন আমরা স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব এবং স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধের কেন্দ্রবিন্দুতে আছি। আমরা এই যুদ্ধ চালিয়ে যাব। গত শুক্রবার রাতে একটি টেলিভিশন ভাষণে হিজবুল্লাহ প্রধান এসব কথা বলেন। খবর তাসনিম নিউজ।

তিনি বলেন, লেবাননের আসন্ন সংসদ নির্বাচন লক্ষ্য করে অস্ট্রেলিয়া এই পদক্ষেপ নিয়েছে। কিছু আঞ্চলিক দেশও হিজবুল্লাহর সমর্থকদের উপর চাপ সৃষ্টি করতে ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করেছে। তিনি উত্তর আফ্রিকায় ইহুদিবাদী শাসকগোষ্ঠীর নজর দেওয়ার দিকেও ইঙ্গিত করেন। তার বক্তব্য, এই পদক্ষেপ আলজেরিয়াসহ অন্যান্যা আরব দেশগুলোর জন্য বিপদ ডেকে আনবে।

অস্ট্রেলিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কারেন অ্যান্ড্রুজ দুদিন আগে হিজবুল্লাহকে ‘সন্ত্রাসী সংগঠন’ হিসেবে ঘোষণা দেন। ক্যানবেরা অস্ট্রেলিয়ার ফৌজদারি কোডের অধীনে হিজবুল্লাহকে সম্পূর্ণরূপে একটি 'সন্ত্রাসী সংগঠন' হিসেবে মনোনীত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ ছাড়া হিজবুল্লাহর সদস্য হওয়া, হিজবুল্লাহকে সমর্থন দেওয়া বেআইনি করা হয়েছে।

২০০৩ সালে অস্ট্রেলিয়া হিজবুল্লাহর সামরিক শাখাকে কালো তালিকাভুক্ত করে। কিন্তু বুধবারের নতুন সিদ্ধান্তটি এই সংগঠনটির রাজনৈতিক শাখাকে অন্তর্ভুক্ত করল। হিজবুল্লাহ লেবাননের রাজনীতিতে একটি শক্তিশালী খেলোয়াড় এবং সংসদে তাদের আসন রয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার ঘোষণার কিছুক্ষণ পর হিজবুল্লাহ তীব্র নিন্দা জানায়। সংগঠনটির পক্ষ থেকে বলা হয়, এর মাধ্যমে আমেরিকান এবং ইহুদিবাদী হুকুমের কাছে অস্ট্রেলিয়ার অবমাননাকর বশ্যতা প্রমাণিত হয়েছে। দেশটি ইসরায়েলি স্বার্থ চরিতার্থ করেছে। সূত্র : তাসনিম নিউজ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ