Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৪ মাঘ ১৪২৮, ১৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

অস্ত্রোপচারের আগে ডাকতে হল সেনা!

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ ডিসেম্বর, ২০২১, ২:১৪ পিএম

রোগীর অস্ত্রোপচারের আগে ডাকতে হল সেনা। এল বম্ব স্কোয়াডও। তার পর শুরু হল জটিল অস্ত্রোপচার। কিন্তু কেন? হাসপাতালে কেন এল বম্ব স্কোয়াড? উত্তরটা একেবারে চমকে উোর মতো।

দিন কয়েক আগে গোপনাঙ্গে প্রচণ্ড যন্ত্রণা নিয়ে এক যুবক হাজির হয়েছিলেন গ্ললেস্টারশায়ার রয়্যাল হাসপাতাল। চিকিৎসকদের জানিয়েছিলেন, তার গোপনাঙ্গে বোমা ঢুকে গিয়েছে। প্রথমে বিশ্বাস না করলেও পরে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তার দাবিকে সত্য বলে মেনে নেন চিকিৎসকেরা। কিন্তু তখনই অস্ত্রোপচার সম্ভব ছিল না। কারণ, যুবকের গোপনাঙ্গে ফেটে যেতে পারত বোমাটি। তাই আর ঝুঁকি নেননি চিকিৎসকেরা। সোজা খবর দেন ব্রিটেনের বম্ব স্কোয়াডে।

খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে আসে সেনার বিশেষ বাহিনী। আসে বম্ব স্কোয়াডও। তারা জানান, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কার একটি বোমার সূচালো অংশ যুবকের গোপনাঙ্গে ঢুকে গিয়েছে। তবে সেই বোমা বিস্ফোরণের সম্ভাবনা নেই। কারণ, বোমাটি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের আমলের। ফলে বহুদিন আগেই বোমার কার্যক্ষমতা নষ্ট হয়ে গিয়েছে। কিন্তু কীভাবে এমন ঘটনা ঘটালেন ওই যুবক?

চিকিৎসকদের ওই যুবক জানিয়েছেন, বিভিন্ন দুষ্প্রাপ্য সমরাস্ত্র সংগ্রহ করা তার শখ। সেখানেই ছিল ওই বোমাটি। ঘর পরিষ্কার করার সময় বিস্ফোরকটি আলাদা করে রেখেছিলেন। পা পিছলে সেই বোমার উপরই পরে যান তিনি। সঙ্গে সঙ্গে বোমার ছুঁচলো অংশটি তার গোপনাঙ্গে ঢুকে যায়। পরে অস্ত্রোপচার করে সেই বোমার অংশ বের করে আনেন চিকিৎসকেরা। তবে তাদের কথায়, চিকিৎসক হিসেবে দীর্ঘ পেশাগত জীবনে এধরনের ঘটনা আগে দেখেননি। তবে অস্ত্রোপচারের পর ভালই আছেন ওই যুবক। সূত্র: রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাজ্য


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ