Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৬ মাঘ ১৪২৮, ১৬ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

শেরপুরে পাগলীকে গণধর্ষনের অভিযোগ, জনতার হাতে আটক-২, পালিয়েছে আরো ২জন

শেরপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৬ ডিসেম্বর, ২০২১, ৯:৪৫ এএম

শেরপুর সদর উপজেলার মোকসেদপুরে এক মানষিক ভারসাম্যহীন (পাগলী) কে গণধর্ষনের অভিযোগে দুইজনকে আটক করেছে জনতা। পরে তাদেরকে গণধুলাই দিয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত আরো দুইজন পালিয়ে যায়।
গত কয়েকদিন ধরে অজ্ঞাত এক মানষিক ভারসাম্যহীন (পাগলী) শেরপুর সদর উপজেলার মোকসেদপুর নন্দীর বাজারে ঘোরাফেরা করে আসছিলো। গতরাত ১১ টার সময় ওই পাগলীকে জোরপূর্বক ধরে নিয়ে মোকসেদপুর খোলা মাঠে নিয়ে চরমুচারিয়া ইউনিয়নের মাছপাড়ার দুলাল মিয়ার ছেলে হকার ফকির, পুরান পাড়ার আলম, নন্দীর পাড়ার জুয়েল ফকির ও পাকুড়িয়া ইউনিয়নের বরাটিয়ার ফেকা মিয়ার ছেলে আচার বিক্রেতা হামেদ ধর্ষন করতে থাকে। এসময় পাগলীর ডাক চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে ফকির ও হামেদকে আটক করে গনধুলাই দিয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। পালিয়ে যায় আরো দুই ভখাটে।
এদিকে এ ঘটনায় এলাকার মানুষের মাঝে চরম ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। আটককৃতরা নানা অপকর্মের সাথেও জড়িত বলে জানান স্থানীয়রা। তাই তারা চাচ্ছে এ জঘন্যতম ঘটনার সাথে জড়িত এসব অপরাধীদের যাতে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি হয়।
কিছু দূর্বৃত্তের কারণে একজন মানষিক ভারসম্যহীন নিরাপদে থাকতে পারবে না, এমনটা হতে পারে না। তাই এসব অপরাধীদের দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে এমন প্রত্যাশাই সবার।
এলাকাবাসীদের মধ্যে আব্দুল মজিদ জানান, আমরা এমন ঝগন্যতম ঘটনার দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবী করছি। রেজাউল ড্রাইভার জানান, এসব দুস্কৃতকারীদের কারণে এখানে পাগলী গুলাও শান্তিতে থাকতে পারে না। তাদের কঠোর বিচার হওয়া দরকার।
শেরপুর সদর থানাা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো: বন্দে আলী মিয়া জানান, এদিকে এ ঘটনার ভিকটিম অজ্ঞাত মানষিক ভারসাম্যহীন (পাগলী)। সে কোন কথাই বলতে পারছে না। তাই ঘটনাটি কতদূর ঘটেছে তা বুঝা যাচ্ছেনা। এ বিষয়ে আলাপ আলোচনা করে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান থানা পুলিশ।



 

Show all comments
  • শাহীনা সুলতানা ৬ ডিসেম্বর, ২০২১, ১০:৫৯ এএম says : 0
    এরা কি মানুষ না আর কিছু?
    Total Reply(0) Reply
  • Md jamal Uddin ৬ ডিসেম্বর, ২০২১, ১০:১৬ এএম says : 0
    ভালো খবর প্রচার করার জন্য ধন্যবাদ
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ