Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৪ মাঘ ১৪২৮, ১৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

বিমানে প্রকাশ্যে বিড়ালকে স্তন্যদান করায় তোলপাড়!

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ ডিসেম্বর, ২০২১, ১:৫৫ পিএম

পশুপ্রেম তথা পোষ্যপ্রেম নতুন কিছু না। তাই বলে বিড়ালকে স্তন্যপান? সম্প্রতি এমন ঘটনাই ঘটিয়েছেন আমেরিকার এক মহিলা। চলন্ত বিমানে পোষ্য বিড়ালকে স্তন্যপান করিয়ে চমকে দিয়েছেন সকলকে। ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন ওই বিমানের কর্মী ও সহযাত্রীরা। অনেকেই বেজায় বিরক্তও হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে আমেরিকার ডেল্টা এয়ারলাইন্সের নিউ ইয়র্ক থেকে আটলান্টাগামী একটি বিমানে। পোষ্যকে নিয়ে মহিলার এই কাণ্ড ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সাধারণত বিমানে পোষ্যদের নিয়ে যাওয়ার জন্য বিশেষ অনুমতি নিতে হয়। সেই অনুযায়ী পোষ্যদের রাখার জন্যও রয়েছে আলাদা ব্যবস্থা। অভিযুক্ত মহিলা অবশ্য সেই পথে পা দেননি। বরং তিনি কোলের সন্তানের মতো করে একটি কম্বলে মুড়ে বিড়ালটিকে সঙ্গে নিয়েই সংরক্ষিত আসনে বসেন। জানা গিয়েছে, ওই মহিলা নিউ ইয়র্কের সাইরাকিউস থেকে জর্জিয়ার আটলান্টায় যাচ্ছিলেন।

বিমানকর্মী ও সহযাত্রীদের একাংশের অভিযোগ, সংরক্ষিত আসনের পাশেই কেরিয়ারে রাখা ছিল পোষ্য। হঠাৎই সেখান থেকে তুলে নিয়ে সকলের সামনে বিড়ালটিকে স্তন্যপান করাতে শুরু করেন মহিলা। ঘটনা চোখে পড়তেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন সহযাত্রীরা। এরপর বিমানকর্মীরা মহিলাকে নিরস্ত করার চেষ্টা করলেও তিনি তা পাত্তা দেননি বলেই অভিযোগ। এরপর একটি অভিযোগ মেসেজ গ্রাউন্ড কন্ট্রোলে পাঠান বিমানকর্মীরা। তারা লেখেন, “১৩এ আসনে বসা মহিলা নিজের বিড়ালকে স্তন্যপান করাচ্ছেন। বারণ করলেও শুনছেন না।”

ওই বিমানটিতে অ্যাটেনডেন্ট ছিলেন আইন্সলে এলিজাবেথ। যিনি পরে গোটা ঘটনার কথা জানান। তার কথায়, “বিড়ালটিকে এমনভাবে তোয়ালেতে জড়ানো ছিল, যে প্রথমে বোঝাই যায়নি যে সেটি বিড়াল। সকলেই ভেবেছিলেন মহিলার কোলের সন্তান বুঝি। ‌নিজের শার্ট তুলে তোয়ালে মোড়া সেই বিড়ালকে জোর করে স্তন্যপান করানোর চেষ্টা করছিলেন মহিলা যাত্রীটি। বারণ করার পরেও কারও কথাই শুনছিলেন না। জবরদস্তি করায় বেড়ালটিও চেঁচামেচি শুরু করেছিল।‌ বিমান অবতরণের পর ওই যাত্রীকে নিরাপত্তারক্ষীদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।” সূত্র: টাইমস নাউ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: স্তন্যদান
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ