Inqilab Logo

শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০৭ মাঘ ১৪২৮, ১৭ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

দরিদ্র দেশগুলোকে টিকা দিতে ওমিক্রন একটি সতর্ক বার্তা

‘পরবর্তী মহামারি হবে আরো প্রাণঘাতী’ যুক্তরাষ্ট্রের ১৬ রাজ্যে ছড়িয়েছে, থাইল্যান্ডে প্রথম শনাক্ত : ভারত-ডেনমার্কে বাড়ছে আশঙ্কাজনক হারে

মুহাম্মদ সানাউল্লাহ/ইশতিয়াক মাহমুদ | প্রকাশের সময় : ৭ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

ওমিক্রন যুক্তরাষ্ট্রের এক তৃতীয়াংশ রাজ্যে শনাক্ত করা হয়েছে। ৫০টি রাজ্যের মধ্যে ওমিক্রন আক্রান্ত রাজ্যের সংখ্যা এখন ১৬। ভারতে এই ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২১। থাইল্যান্ডে প্রথমবারের মতো ওমিক্রন সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। একজন মার্কিন নাগরিকের শরীরে রাজধানী ব্যাংককে এ সংক্রমণ শনাক্ত করা হয়। ওদিকে সংক্রমণ রোধের জন্য বিধি-নিষেধের বিরুদ্ধে সহিংস বিক্ষোভ হয়েছে ব্রাসেলস, বেলজিয়ামে। অন্যদিকে ব্রিটেনের বিজ্ঞানীরা বলেছেন, করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে ব্রিটেন যে অগ্রগতি অর্জন করেছে, তা এখন নস্যাৎ হয়ে যাওয়ার পথে। অন্যদিকে করোনাভাইরাসের টিকার অন্যতম আবিষ্কারক প্রতিষ্ঠান অক্সফোর্ড/এস্ট্রাজেনেকার বিজ্ঞানী সারা গিলবার্ট সতর্কতা দিয়ে বলেছেন পরবর্তী মহামারী হতে পারে আরো ভয়াবহ, আরো প্রাণঘাতী।

দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা বলেছেন, তার দেশে বেশিরভাগ প্রদেশে নতুন যে সংক্রমণ দেখা দিচ্ছে, তার বেশির ভাগই ওমিক্রন সংক্রমণ। পাশাপাশি তিনি জনগণকে করোনাভাইরাসের টিকা নেয়ার জন্য উৎসাহিত করেছেন। তিনি বলেছেন, তার দেশ করোনাভাইরাস সংক্রমণের চতুর্থ ঢেউয়ের মুখোমুখি। এরইমধ্যে সংক্রমনের যে ঢেউ দেখা দিয়েছে তা মহামারি চলাকালে এর আগে দেখা দেয়নি। গত এক সপ্তাহে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে পাঁচ গুণ। প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা আরো বলেন, ওমিক্রন সংক্রমণের ফলে হাসপাতালের ওপর কী প্রভাব ফেলবে তা এখনও নিশ্চিত নয়। তবে এরই মধ্যে অধিক পরিমাণ রোগী ভর্তি করার জন্য হাসপাতালগুলোতে প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। করোনাভাইরাস আক্রান্তদের কিভাবে দ্রুততার সাথে চিকিৎসা সম্পন্ন করা যায় সে বিষয় খতিয়ে দেখছে সরকার। একইসাথে অবস্থা পর্যালোচনা করার জন্য ন্যাশনাল করোনাভাইরাস কমান্ড কাউন্সিলের একটি বৈঠক আহ্বান করা হচ্ছে খুব শিগগিরই।

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে বিশ্বকে টিকা দিতে ব্যর্থতা ওমিক্রনের বৈকল্পিকের উত্থানের জন্য নিখুঁত প্রজনন ক্ষেত্র তৈরি করেছে। এটি ধনী দেশগুলোর জন্য একটি সতর্কতা হিসাবে কাজ করা উচিত বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন।

ধনী ও দরিদ্র দেশগুলোর মধ্যে ভ্যাকসিনের বৈষম্যের সঙ্কট মোকাবেলায় গ্রীষ্মকাল থেকেই পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। তারা বলেছিলেন যে, বিশ্বের বড় অংশগুলি যত বেশি দিন টিকাবিহীন থাকবে, ভাইরাসটি উল্লেখযোগ্যভাবে পরিবর্তিত হওয়ার আশঙ্কা তত বেশি। এই ধরনের বৈকল্পিক উত্থান মহামারী শেষ করার প্রচেষ্টাকে লাইনচ্যুত করার হুমকি দেয়। ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন বলেছে যে, পরিবর্তিত ওমিক্রন স্ট্রেন আন্তর্জাতিকভাবে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে এবং সংক্রমণ বৃদ্ধির খুব উচ্চ ঝুঁকি তৈরি করে যা কিছু জায়গায় গুরুতর পরিণতি হতে পারে। ‘ওমিক্রন আমাদের সাথে আছে কারণ আমরা বিশ্বকে টিকা দিতে ব্যর্থ হয়েছি,’ বলেছেন উইনি বায়ানিমা, ইউএনএডসের নির্বাহী পরিচালক এবং পিপলস ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্স, একটি প্রচারাভিযান গ্রæপের সহ-সভাপতি। ‘এটি একটি ওয়েক-আপ কল হওয়া উচিত।’

পিপলস ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্স দ্বারা প্রকাশিত নতুন পরিসংখ্যানগুলো দেখায় যে, যুক্তরাজ্যে পরিচালিত বুস্টার বা তৃতীয় জ্যাবের সংখ্যা বিশ্বের দরিদ্রতম দেশগুলোর সম্পূর্ণ টিকাপ্রাপ্ত লোকের মোট সংখ্যার সমান। যুক্তরাজ্য ২ কোটি বুস্টার ভ্যাকসিনের মাইলফলকে পৌঁছেছে। একই সময়ে, পিপলস ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্স দ্বারা উদ্ধৃত আওয়ার ওয়ার্ল্ড ইন ডেটা পরিসংখ্যান অনুসারে, বিশ্বব্যাংক দ্বারা নিম্ন-আয়ের দেশ হিসাবে শ্রেণীবদ্ধ সমস্ত ২৭টি দেশে মাত্র ২ কোটি মানুষকে সম্পূর্ণ টিকা দেয়া হয়েছিল। ‘ওমিক্রন ভেরিয়েন্টের নতুন হুমকির সাথে, এটা স্পষ্ট যে আমরা উন্নয়নশীল বিশ্বের অনেকাংশকে পিছনে রেখে মহামারী থেকে বেরিয়ে আসতে পারি না,’ বলেছেন অক্সফামের স্বাস্থ্য নীতি ম্যানেজার আনা ম্যারিয়ট। ‘যদি সব দেশে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব টিকা দেয়া না হয়, আমরা ভিন্ন ভিন্ন স্ট্রেনের তরঙ্গ দেখতে পাব।’

সর্বশেষ খবরে জানা গেছে দক্ষিণ আফ্রিকায় ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৩২৫ জন। এ সময়ে মারা গেছেন ১৪৪ জন। ভারতে একদিনে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৩০৬ জন। মারা গেছেন ২১১ জন। নতুন তথ্যে জানানো হয়েছে, ভারতে ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২১ জনে। দক্ষিণ আফ্রিকায় একদিনে আক্রান্ত হয়েছেন ১১,১২৫ জন। আগের দিনের তুলনায় এ সংখ্যা সামান্য কম।

সোমবার থাইল্যান্ডের স্বাস্থ্য বিষয়ক কর্মকর্তারা বলেছেন, গত মাসেই স্পেন সফর করেছিলেন এমন একজন মার্কিন নাগরিকের দেশে প্রথমবারের মতো করোনা ভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। ওই ব্যক্তি গত ২৯ নভেম্বর থাইল্যান্ডে পৌঁছেছেন। এর মধ্য দিয়ে ওমিক্রন আক্রান্তের দিক দিয়ে থাইল্যান্ড ৪৭তম দেশ। দেশটির ডিপার্টমেন্ট অফ ডিজিজ কন্ট্রোল-এর মহাপরিচালক ওপাস কার্নকাউনপং এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন সংবাদ সম্মেলনে। তিনি বলেন, ওমিক্রন আক্রান্ত ওই মার্কিন নাগরিকের বয়স ৩৫ বছর। তার হালকা সংক্রমণ রয়েছে। তার সংস্পর্শে এসেছিলেন এমন ব্যক্তিদের করোনার পরীক্ষা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য বোতসোয়ানা ইমাতিনি, লেসোথো, মালাবি, মোজাম্বিক, নামিবিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং জিম্বাবুয়েসহ দক্ষিণ আফ্রিকার আটটি দেশের বিরুদ্ধে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে থাইল্যান্ড।
ডেনমার্কে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) নতুন ‘ওমিক্রন’ ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা উদ্বেগজনকভাবে দ্রæত বাড়ছে। দেশটিতে রোববার ওমিক্রনে নিশ্চিত আক্রান্তের সংখ্যা ১৮৩ জনে দাঁড়িয়েছে বলে ডেনমার্কের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ জানায়। ডেনমার্কে গত ৪৮ ঘণ্টায় করোনার এ ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্তের সংখ্যা তিনগুণ বেড়েছে। শুক্রবার নিশ্চিত আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৮ এবং সন্দেহজনক আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৪২ জন।

দ্য ইউরোপিয়ান সেন্টার ফর ডিজিজ প্রিভেনশন অ্যান্ড কন্ট্রোল (ইসিডিসি) এর আগে নরওয়ে ও আইসল্যান্ডসহ পুরো ইউরোপে ওমিক্রনে আক্রান্তের সংখ্যা ১৮২ বলে জানিয়েছিল। এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসের এ ভ্যারিয়েন্ট ইউরোপের ১৭টি দেশে ছড়িয়েছে বলেও ইসিডিসি জানায়।

ডেলটার চেয়ে কম ভয়াবহ হতে পারে ওমিক্রন : ড. ফাউসি
যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, নভেল করোনাভাইরাসের ওমিক্রন ভ্যারিয়্যান্ট দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। তবে এর প্রাথমিক লক্ষণ দেখে মনে হচ্ছে- এটি ডেলটা ভ্যারিয়্যান্টের চেয়ে কম ভয়াবহ হবে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রধান স্বাস্থ্য উপদেষ্টা ড. অ্যান্থনি ফাউসি সংবাদমাধ্যম সিএনএন’র ‘স্টেট অব দ্য ইউনিয়ন’ অনুষ্ঠানে বলেছেন, ওমিক্রনের ভয়াবহতা নিয়ে নিশ্চিত করে বলতে বিজ্ঞানীদের এ ভ্যারিয়্যান্টের বিষয়ে আরও তথ্য জানা প্রয়োজন।

ড. ফাউসি বলেন, ‘এখন পর্যন্ত মনে হচ্ছে না এর ব্যাপক ভয়াবহতা রয়েছে। কিন্তু, এটা যে অসুস্থতার তীব্রতার দিক দিয়ে ডেলটার চেয়ে কম, সেরকম নিশ্চিত কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে আমাদের আরও সতর্ক থাকতে হবে।’
ড. ফাউসি জানান, ওমিক্রনের উত্থানের পর দক্ষিণ আফ্রিকাসহ আফ্রিকার যেসব দেশ থেকে মার্কিন নাগরিক নন এমন লোকজনের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল তা তুলে নেওয়ার কথা ভাবছে বাইডেন প্রশাসন।

অন্যদিকে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডবিøউএইচও) মহামারি বিশেষজ্ঞ ড. মারিয়া ভন কেরখোভ মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিবিএস’র ‘ফেস দ্য নেশন’ অনুষ্ঠানে বলেন, ‘ওমিক্রন যদি ডেলটার চেয়ে কম ভয়াবহ প্রমাণ হয়, তবুও এটি একটি সমস্যা হিসেবে রয়ে যাবে।’ সূত্র : এএফপি, এপি, বিবিসি, দ্য গার্ডিয়ান ও সিএনএন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ