Inqilab Logo

বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮, ২২ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

মধ্যপ্রদেশের স্কুলে হামলা বজরং দলের

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:১৯ পিএম

মধ্যপ্রদেশের একটি খ্রিস্টান মিশনারি স্কুলে হামলা চালালো বজরং দল। কোনোমতে প্রাণে বাঁচলেন ছাত্ররা।

মধ্যপ্রদেশের গুরুত্বপূর্ণ জেলা বিদিশা। সেখানে গঞ্জ বাসোদায় আছে সেন্ট ডোসেফ স্কুল। এই খ্রিস্টান মিশনারি স্কুল ওই এলাকায় নাম করা। সম্প্রতি অভিযোগ ওঠে, ওই স্কুলে আট ছাত্রকে ধর্মান্তরকরণ করা হয়েছে।

সোমবার ওই অভিযোগে স্কুলের বাইরে জড়ো হয় প্রচুর মানুষ। যার অধিকাংশই বজরং দলের সদস্য। সঙ্ঘ পরিবারের একটি শাখা সংগঠন হলো বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। বজরং দল হলো বিশ্ব হিন্দু পরিষদের যুব শাখা। সোমবার তারা স্থানীয় আরো কিছু মানুষকে সঙ্গে নিয়ে স্কুল চত্বরে পৌঁছায়। লাঠি এবং পাথর নিয়ে স্কুলে আক্রমণ চালায় তারা।

যখন এই ঘটনা ঘটছে, স্কুলে তখন দ্বাদশ শ্রেণির অঙ্ক পরীক্ষা চলছিল। পুলিশের সাহায্যে দ্রুত ওই ছাত্র এবং শিক্ষকদের স্কুল থেকে বের করে দেয়া হয়। স্কুল ছাত্ররা জানিয়েছে, কোনোমতে প্রাণ হাতে করে তাদের স্কুল থেকে বের হতে হয়েছে। তাদের লক্ষ্য করে আক্রমণকারীরা ঢিল ছুঁড়ছিল।

ঘটনার পর এলাকায় তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে। কিন্তু স্কুল কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, পুলিশ সময়মতো ব্যবস্থা নেয়নি। স্কুলে যে আক্রমণ হতে পারে, তা আগেই তারা জেনেছিল এবং পুলিশের কাছে সাহায্য চেয়েছিল। কিন্তু পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

বজরং দলের স্থানীয় নেতা জানিয়েছেন, ওই স্কুলে ধর্মপরিবর্তনের কাজ হচ্ছে। তারা তদন্ত চান। অভিযোগ প্রমাণিত হলে স্কুল ভেঙে দেওয়া হবে। তবে আক্রমণের বিষয়টি নিয়ে তিনি মন্তব্য করেননি।

স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, যে আট ছাত্রের ধর্মান্তরকরণ হয়েছে বলে অভিযোগ, সেই নামের কোনো ছাত্রই ওই স্কুলে পড়ে না। গোটা বিষয়টি নিয়ে নতুন করে বিতর্ক শুরু হয়েছে দেশ জুড়ে। মানবাধিকার সংগঠনগুলি এর নিন্দা করেছে। সূত্র: পিটিআই, এনডিটিভি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

২৫ জানুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন