Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৬ মাঘ ১৪২৮, ১৬ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

উপসাগরীয় দেশগুলোর সাথে সম্পর্কের উন্নয়ন চায় তুরস্ক

সউদী ও ওমানের ৩০ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

তুরস্ক, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং সউদী আরব উপসাগরীয় অঞ্চলের সাবেক প্রতিদ্ব›দ্বীদের সাথে সম্পর্ক পুনর্গঠনের চেষ্টা করছে। এরই রেশ ধরে ওমানের সাথে ৩০ বিলিয়ন ডলার মূল্যের চুক্তি স্বাক্ষর করেছে সউদী আরব। জ্বালানী শক্তি এবং পর্যটন খাতে সহযোগিতা থেকে শুরু করে অর্থ ও প্রযুক্তি পর্যন্ত তাদের অর্থনীতিকে বৈচিত্রময় কররার উদ্দেশ্যে দুই দেশের মধ্যে সমঝোতা স্মারকগুলো স্বাক্ষরিত হয়।

সউদী প্রেস এজেন্সি গতকাল বলেছে, ‘ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান কাতার সহ উপসাগরীয় আরব দেশগুলিতে সফর শুরু করার সাথে সাথে সউদী ও ওমানি কোম্পানিগুলো ৩০ বিলিয়ন ডলার মূল্যের ১৩টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে।’ সউদী আারবের আরবের ছায়া শাসক প্রিন্স সালমান ডিসেম্বরের মাঝামাঝি উপসাগরীয় আরব শীর্ষ সম্মেলনের আগে একটি আঞ্চলিক সফরের প্রথম গন্তব্য হিসেবে সোমবার রাতে মাস্কাটে পৌঁছেন। এসপিএ’র মতে, তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন, কুয়েত এবং কাতারও সফর করবেন। ৪ বছর আগে কাতারের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করার পর সউদী প্রিন্সের প্রথম দোহা সফর হিসেবে চিহ্নিত হচ্ছে এটি।
এরমধ্যে, প্রিন্স মোহাম্মদের সফরটি গতকাল তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানের দোহা সফরের সাথে মিলে গেছে, যদিও কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শখ মোহাম্মদ বিন আবদুল রহমান আল-থানি বলেছেন যে এটি কাকতালীয়। তবে বলা হচ্ছে যে, সউদী এবং উপসাগরীয় দেশগুলির সাথে সম্পর্ক পুনরুদ্ধার এবং জোরদার করার প্রয়াস করছে তুরস্ক। এর আগে, ২০১৮ সালে সউদী আরবের ইস্তাম্বুল কনস্যুলেটে সউদী সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার পর আঙ্কারা এবং রিয়াদের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটে।

এদিকে, কাতারের উপ-প্রধানমন্ত্রী এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন আবদুল রহমান আল-থানি ঘোষণা করেছেন যে, কাতারের মহামান্য আমির শেখ তামিম বিনের সভাপতিত্বে কাতার এবং তুরস্কের মধ্যে সুপ্রিম স্ট্র্যাটেজিক কমিটির ৭ তম অধিবেশনের বৈঠকে দুই দেশের মধ্যে পূর্ববর্তী ৮০টি চুক্তি ছাড়াও ১১টি নতুন চুক্তি স্বাক্ষরিত হতে যাচ্ছে। মঙ্গলবার দোহায় কমিটির ৭তম অধিবেশনের জন্য প্রস্তুতিম‚লক মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকের পর তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলুর সাথে একটি যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা জানান।

শেখ মোহাম্মদ বলেন যে, দুই দেশের মধ্যে এবং বিভিন্ন আঞ্চলিক ইস্যু, বিশেষ করে আফগান পরিস্থিতির উন্নয়ন, আফগানিস্তানের অবনতিশীল মানবিক পরিস্থিতি, সেইসাথে দেশটিতে মানবিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক প্রচেষ্টা বাড়ানোর জন্য যৌথ-পদক্ষেপ ও সমন্বয়ের উপায়, এবং সহযোগিতার বিষয়ে আন্তর্জাতিক মতামতকে একীভ‚ত করার উপায় আলোচনা হয়েছে। শেখ মোহাম্মদ বলেন, ‘কাবুল বিমানবন্দরের স্বাভাবিক কার্যক্রম পুনরায় চালু করার জন্য একটি চুক্তিতে পৌঁছানোর জন্য কাতার ও তুরস্ক আফগান সরকারের সাথে কাজ করছে।’ তিনি আরও উল্লেখ করেছেন যে, ফিলিস্তিনের অবস্থাকে মূল সমস্যা হিসাবে সমর্থন করার প্রতি দুটি দেশের দৃষ্টিভঙ্গি ও দৃঢ় অবস্থান মিলে গেছে। বৈঠকে আরব ও ইসলামিক বিশ্ব, ইরাক, সিরিয়া এবং লিবিয়ার উন্নয়ন নিয়ে আলোচনা করার পাশাপাশি আঞ্চলিক সমস্যাগুলির উন্নয়ন এবং দুই ভ্রাতৃপ্রতিম দেশের মধ্যে আলোচনার ধারাবাহিকতা অনুসরণ করার বিষয়ে আলোচনা হয়।

তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রী মেভলুত কোভুসগলু যৌথ সংবাদ সম্মেলনে কাতারের সাথে নতুন চুক্তিগুলির বিষয়ে জানিয়েছেন যে, অনেক তুর্কি শিক্ষার্থী কাতারে পড়তে চায় এবং কাতাররাও তুরস্কে পড়তে চাওয়ায়, বুধবার উভয় পক্ষ সাংস্কৃতিক, শিক্ষাগত এবং একাডেমিক ক্ষেত্রে সহযোগিতা সম্পর্কিত একটি নথিতে স্বাক্ষর করবে। আফগান ইস্যুতে তিনি বলেছিলেন যে আফগান জনগণের এখন জরুরিভাবে মানবিক সহায়তা প্রয়োজন। লিবিয়ার সম্পর্কে তিনি বলেন যে, তার দেশ লিবিয়ার উন্নয়নগুলি পর্যবেক্ষণ করছে। তিনি বলেন যে, হাফতারের নিয়ন্ত্রণাধীন এলাকায় বেশ কয়েকজন তুর্কি নাগরিককে অপহরণ করা হয়েছিল এবং তারা সম্প্রতি কাতারের প্রশংসনীয় প্রচেষ্টায় মুক্তি পেয়েছে এবং সেই প্রচেষ্টার জন্য তিনি কাতারি পক্ষকে ধন্যবাদ জানান।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এবং সউদী প্রিন্সের দোহা সফরের ফলোআপের বিষয়ে তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘যখন সম্পর্ক স্বাভাবিককরণ শুরু হয়, তখন আমরা একই সাথে এই ধরনের সফর দেখতে পাই এবং এটি স্বাভাবিক এবং আমরা আমাদের গ্রহণযোগ্যতা নিশ্চিত করতে চাই, এবং সউদী আরব এবং কাতারের মধ্যে সম্পর্ক পুনরুদ্ধারের জন্য এবং কাতারের উপর অবরোধের অবসানের জন্য আমাদের আনন্দ নিশ্চিত করে যে, তুরস্ক বিতর্কিত অবস্থানে থাকা সত্তে¡ও এই অঞ্চলের সমস্ত দেশের সাথে তার সম্পর্ক উন্নত করতে চায়, তবে এতে দেশগুলোর মধ্যে সম্পর্ক ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া উচিত নয়। সূত্র : গাল্ফ টাইম্স, টাইম্স অফ ওমান।



 

Show all comments
  • আরাফাত ৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ১০:৪৬ এএম says : 0
    মুসলিম দেশগুলোর স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে তুরস্ককে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে
    Total Reply(0) Reply
  • ডালিম ৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ৩:৫৩ এএম says : 0
    তুরস্ক তার লক্ষে এগিয়ে যাচ্ছে
    Total Reply(0) Reply
  • জসিম ৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ১১:৩২ এএম says : 0
    মুসলমানদেরেএক কাতারে আসার এখনই সময়
    Total Reply(0) Reply
  • ইব্রাহিম ৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ১১:৩৩ এএম says : 0
    আগামী মুসলীম বিশ্বসহ পুরো বিশ্বের নেতৃত্ব দিবে তুরস্ক
    Total Reply(0) Reply
  • গোলাম কাদের ৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ১১:৩১ এএম says : 0
    মুসলীম দেশগুলো ঐক্যবদ্ধ হতে পারলে সবাই লাভবান হবে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সউদী আরব

২ জানুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন