Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১১ মাঘ ১৪২৮, ২১ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

ইবিতে জিয়া পরিষদের মানববন্ধন

ইবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ৩:২৪ পিএম

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) জিয়া পরিষদ বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে উপযুক্ত চিকিৎসার দাবিতে মানববন্ধন করেছে। বুধবার বেলা ১১ টায় অনুষদ ভবনের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় জিয়া পরিষদ শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী ইউনিটের সদস্যবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

জিয়া পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ড. তোজাম্মেল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জিয়া পরিষদের কেন্দ্রীয় মহাসচিব প্রফেসর ড. এমতাজ হোসেন, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. মোস্তাফিজুর রহমান, প্রফেসর ড. মিজানুর রহমান, প্রফেসর ড. নজিবুল হক বক্তব্য রাখেন।

বাংলা বিভাগের প্রফেসর ড. রাশিদুজ্জামানের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আল কোরআন এন্ড ইসলামিক স্টাজিজ বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. এম এয়াকুব আলী, আইন বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. নুরুন নাহার, প্রফেসর ড. আবদুল মালেক, প্রফেসর ড. রফিকুল ইসলামসহ প্রায় অর্ধশত শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

মানবন্ধনে বক্তব্য প্রদানকালে প্রফেসর ড. এমতাজ হোসেন বলেন, “আমরা শিক্ষক, আমাদের কাজ মানববন্ধন করা নয়। আমরা ক্লাসে ও অফিসে থাকতে চাই। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া সারাজীবন গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় ও সাধারণ মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করে গেছেন। অথচ গণতন্ত্রের মাকে বিভিন্ন অপকৌশলে বন্দী রেখে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে। আমরা এ মানববন্ধন থেকে বলতে চাই বেগম খালেদা জিয়াকে দ্রæত মুক্তি দিয়ে উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হোক।”

সভাপতির বক্তব্যে প্রফেসর ড. তোজাম্মেল হোসেন বলেন, “অত্যন্ত দুঃখের সাথে জানাচ্ছি, যে পরিবার বাংলাদেশের সাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের জন্য সর্বোচ্চ ত্যাগ করেছে। শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীনতার লাল সূর্য ছিনিয়ে আনতে পেরেছিলো। আজ তারই সহধর্মিনীকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে জেলে রাখা হচ্ছে, একজন সাধারণ মানুষের যে চিকিৎসার অধিকার সেটা থেকেও বঞ্চিত করা হচ্ছে। বেগম খালেদা জিয়ার যদি চিকিৎসার অভাবে কোন কিছু হয় তবে সরকারকে চরম মূল্য দিতে হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইবি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ