Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৬ মাঘ ১৪২৮, ১৬ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ধামরাইয়ে জামিনে থাকা হত্যা মামলার আসামীকে মারধর, পুলিশ গিয়ে উদ্ধার

ধামরাই( ঢাকা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ৫:২৯ পিএম

ঢাকার ধামরাইয়ের আলোচিত সুজন হত্যা মামলায় জামিনে আসা আসামী মোঃ আসলাম (৩৭) কে আটক করে মারধর করেছে মামলার বাদীপক্ষের লোকজন । পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় এবং তার জামিনের সত্যতা নিশ্চিত করে আসামির স্ত্রী নারগিস আক্তার ও তার ভগ্নীপতি আবুল হাসেমের জিম্মায় তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

জামিনে থাকা আসলাম উপজেলার কুল্লা ইউনিয়নের বিশু মিয়ার ছেলে।

গতকাল বুধবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে উপজেলার জয়পুরা এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

নিহত সুজনের বোন নুরজাহান বেগম বলেন, আসলাম আমার ভাইয়ের হত্যাকারী। সে তিন দিন আগে হাইকোর্ট থেকে জামিনে এসেই আমার বৃদ্ধ বাবা সোনা মিয়া(৬৫) কে হুমকি দেয়। এখন আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। তাই আমরা আসলামকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করি।


এ বিষয়ে ধামরাই থানার পুলিশ পরিদর্শক ( অপারেশন) নির্মল চন্দ্র দাস বলেন, হত্যা মামলার আসামী আসলাম ওরফে ইয়াদ হাইকোর্ট থেকে চার সপ্তাহের জামিনে এসেছে।
বাদী পক্ষের লোকজন আসলামকে মারধর করছে এমন ঘটনা জানার পর পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে আসামী আসলাম জামিনে থাকায় তার জামিনের কাগজপত্র যাচাই বাছাই করে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

প্রসঙ্গত, উপজেলার কুল্লা ইউনিয়নের লাড়ুয়াকুন্ডু এলাকার দুলালুর রহমানের স্ত্রী সামিয়া বেগম ও আসলাম পূর্ব শত্রুতার জেরে সুজনকে হত্যা করে লাশ সানোড়া ইউনিয়নের বাটুলিয়া এলাকার একটি জঙ্গলে পরিপূর্ণ একটি উঁচু ভিটায় ফেলে রাখেন।

এ ঘটনার সাথে জড়িত সামিয়া বেগম ও আসলামের নামে একটি হত্যা মামলায়( মামলা নং-১৬) তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। সেই মামলায় গত ৩ দিন আগে জামিনে আসেন আসামী আসলাম।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উদ্ধার

২০ জানুয়ারি, ২০২২
১৮ জানুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন