Inqilab Logo

বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

ঘন কুয়াশায় ফেরি চলাচলে বিঘ্ন

আরিচা-কাজিরহাট এবং পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুট

আরিচা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৯ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০৩ এএম

ঘন কুয়াশার কারণে আরিচা-কাজিরহাট নৌরুটে ১১ ঘণ্টা এবং পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ৮ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে। দীর্ঘ এসময় ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় যানবাহন শ্রমিক ও যাত্রীদেরকে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে। ফেরি পারাপারের জন্য রাতে আসা নৈশ কোচগুলোকে ঘাটেই অপেক্ষা এবং যাত্রীদেরকে বাসের মধ্যে বসেই রাত্রীযাপন করতে হয়েছে।
বিআইডব্লিউটিসির আরিচা আঞ্চলিক কার্যালয় সুত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর থেকেই নদীতে কুয়াশা পড়তে থাকে। রাত ১০টার দিকে কুয়াশার তীব্রতা বেড়ে গেলে নৌ-পথগুলো দৃষ্টিসীমার বাইরে চলে যায়। দুর্ঘটনা এড়াতে কর্তৃপক্ষ গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টা থেকে পরদিন গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত দীর্ঘ ১১ ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। গতকাল বুধবার সকাল ৯টার দিকে ঘন কুয়াশা কেটে গেলে পুনরায় ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে।
এদিকে একই কারণে গত মঙ্গলবার রাত ১টা থেকে পরের দিন গতকাল বুধবার সকাল ৯টা পর্যন্ত দীর্ঘ একটানা ৮ ঘণ্টা ফেরি পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ করে থাকে। এসময় যানবাহন ও যাত্রী নিয়ে চারটি ফেরি পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুটের মাঝ নদীতে নোঙর করে থাকতে বাধ্য হয়। বাকী ফেরিগুলো উভয় ঘাটে নোঙর করে থাকে।
এদিকে আরিচা-কাজিরহাট নৌ-রুটে ঘন কুয়াশার কারণে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার পর ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে যানবাহন বোঝাই করে ফেরি কপোতি ও ফরিদপুর আরিচা ঘাটে এবং ফেরি শাহ মখদুম ও ক্যামেলিয়া কাজিরহাট ঘাটে গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার পর থেকে ঘাটেই নোঙর করে রয়েছে। ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় যানবাহনগুলো ঘাটে আটকে পড়ায় যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে ফেরি পারাপারের জন্য আসা যাত্রী এবং যানবাহন শ্রমিকদেরকে।
বিআইডব্লিউটিসির আরিচা আঞ্চলিক কার্যালয়ের ডিজিএম মো. জিল্লুর রহমান জানান, ঘন কুয়াশার কারণে নৌপথ দেখা যাচ্ছিল না। এ অবস্থায় ফেরি চালাতে গেলে দুর্ঘটনার আশংকা থাকে। তাই ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়। গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঘন কুয়াশা কেটে গেলে পুনরায় ফেরি চলাচল শুরু করে বলে তিনি জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ