Inqilab Logo

শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

সেনাবাহিনীকে গুড়িয়ে সেমিফাইনালে আবাহনী

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ ডিসেম্বর, ২০২১, ৯:১৫ পিএম

ঘরোয়া ফুটবলের মৌসুমসূচক টুর্নামেন্ট স্বাধীনতা কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে গুড়িয়ে শেষ চারে জায়গা করে নিলো ঢাকা আবাহনী লিমিটেড। শুক্রবার সন্ধ্যায় কমলাপুরস্থ বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে শেষ আটের প্রথম ম্যাচে রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলা কোস্টারিকার ফরোয়ার্ড ড্যানিয়েল কলিন্দ্রেসের জোড়া গোলে আবাহনী ৪-০ ব্যবধানে উড়িয়ে দেয় সেনাবাহিনীকে। বিজয়ী দলের হয়ে কলিন্দ্রেস দু’টি এবং ফরোয়ার্ড নাবীব নেওয়াজ জীবন ও ইমন মাহমুদ বাবু একটি করে গোল করেন।

শুক্রবার ম্যাচে দুই ব্রাজিলিয়ান ও কোস্টারিকার কলিন্দ্রেসকে রেখে আক্রমণভাগ সাজালেও সেনাবাহিনীর রক্ষণে চিড় ধরাতে হিমশিম খেতে হয় আবাহনীকে। শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল উপহার দিলেও তারা প্রথম গোল পায় বিরতির ঠিক আগে। ৩ মিনিটে এক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে বক্সের বাইরে থেকে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ডোরিয়েলটন গোমেজ নাসিমেন্তোর জোরালো শট ফেরান সেনাবাহিনী গোলরক্ষক আলমগীর হোসেন। ৮ মিনিটে টুটুল হোসেন বাদশার হাস্যকর ভুলে দারুণ সুযোগ পায় সেনাবাহিনী। আবাহনীর ডিফেন্ডার ভুল পাসে বল তুলে দেন শাহরিয়ার ইমনের পায়ে। কিছুটা এগিয়ে সেনাবাহিনীর এই ফরোয়ার্ড বাঁ পায়ে শট নিলে বল ক্রসবার ঘেষে বাইরে চলে যায়। ২১ মিনিটে রাফায়েল অগাস্তো দি সিলভার ক্রসে ডোরিয়েলটনের ব্যাক ভলি উড়ে যায় ক্রসবারের উপর দিয়ে। ৩৩ মিনিটে কলিন্দ্রেসের শটও একইভাবে উড়ে যায়। ৪১ মিনিটে আরেকটি ভালো সুযোগ নষ্ট করে আবাহনী। কলিন্দ্রেসের ক্রসে ডোরিয়েলটনের হেড আলমগীর ঝাঁপিয়ে ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে না পারলে ফিরতি বলে রাকিবও পারেননি লক্ষ্যভেদ করতে। প্রথমার্ধের অন্তিম সময়ে অপেক্ষা ফুরায় আবাহনীর। ম্যাচের ৪৫ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে রাফায়েল ক্রস করলে তা নিয়ন্ত্রণে নিয়ে দেখে-শুনে ডান পায়ের দারুণ কোনাকুনি শটে গোল করেন কলিন্দ্রেস (১-০)। এগিয়ে থেকে বিরতিতে গিয়ে দ্বিতীয়ার্ধের আরো তিন গোল আদায় করে নেয় ঢাকার আকাশী-হলুদরা। ম্যাচের ৬৭ মিনিটে বাঁ দিক থেকে কলিন্দ্রেসের আড়াআড়ি ক্রসে হেডে লক্ষ্যভেদ করেন নাবীব নেওয়াজ জীবন (২-০)। তিন মিনিট পর ফের আবাহনীর গোল উৎসব। ম্যাচের ৭০ মিনিটে প্রায় ২০ গজ দূর থেকে নেওয়া ফ্রি-কিকে গোল করে কলিন্দ্রেস (৩-০)। আক্রমণের ধার ধরে রেখে ৭৬ মিনিটে রাফায়েলের পাস ধরে বক্সে ঢুকে লব করে গোলমুখে বল ফেলেন রাকিব। আনমার্কড থাকা ইমন মাহমুদ বাবুর হেডে পরাস্ত হন সেনাবাহিনী গোলরক্ষক (৪-০)। ৮১ মিনিটে রাকিবকে মারাত্মক ফাউল করে সরাসরি লালকার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন সেনাবাহিনীর ডিফেন্ডার হুমায়ন কবির খান। বাকি সময় আর গোল না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত ৪-০ ব্যবধানের জয় নিয়ে সেমিফাইনালে ওঠার আনন্দে মাঠ ছাড়ে আবাহনী।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঘরোয়া ফুটবল

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ