Inqilab Logo

শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্দোলনের মাধ্যমে মানবিকতা অর্জিত হয় না

খালেদা জিয়া প্রসঙ্গে আইনমন্ত্রী

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ও আখাউড়া উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১১ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর প্রসঙ্গে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়কমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ওনার ১৫ জন আইনজীবী আমার সাথে দেখা করেছিলেন। তারা যে আবেদন করেছেন সেটার কোন নজির আছে কি না তা দেখার জন্য আমি সময় নিয়েছি। অথচ তারা এই সময়েই আন্দোলনের হুঙ্কার দেয়। মানবিকতা আন্দোলনের মাধ্যমে অর্জিত হয় না। আইন আইনের গতিতে চলবে, জিয়াউর রহমানের গতিতে নয়।
মন্ত্রী বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের ১৭ জনকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছিল। এ সত্য কথাটা জানার পরও খালেদা জিয়া মিথ্যা জন্মদিন সাজিয়ে কেক কাটে। তারপরও শেখ হাসিনা, বেগম খালেদা জিয়া অসুস্থ হওয়ায় দুটি শর্তে সাজা স্থগিত রেখে তাকে মুক্তি দেন। একটি হচ্ছে তিনি বিদেশ যেতে পারবেন না এবং বাসায় থেকে চিকিৎসা করবেন। কিন্তু আমরা বলিনি তিনি হাসপাতালে যেতে পারবেন না। তিনি তিন বার হাসপাতালে গেছেন। এখন বলছে বিদেশ যেতে দিতে হবে।
তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে উন্নয়ন হচ্ছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শেখ হাসিনার সেবার সরকার বাংলাদেশের মানুষের ভবিষ্যৎ পাল্টে দেবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুজিববর্ষ এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর প্রাক্কালে ঘোষণা দিয়েছেন যার ঘর নাই, তাকে ঘর বানিয়ে দিবেন। যাদের ঘর নাই, তাদের জমিও লাগবে না। খাস জমি লিখে দিয়ে তাদেরকে ঘর বানিয়ে দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হয়েছে এবং এটা করে দেওয়া হবে। শেখ হাসিনা ১ লাখ ৮৩ হাজার টাকার কোটি টাকার প্রণোদনা দিয়েছেন যাতে কেউ চাকরিচ্যুত না হয়, কারও কর্মস্থল যাতে বন্ধ না হয়ে যায়।
আইনমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা করোনাভাইরাস পার করেছি, আমরা আবার এদেশের উন্নয়নের চাকা ঘুরাতে শুরু করে দেব। করোনাভাইরাসের জন্য যে উন্নয়ন বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। করোনাভাইরাস কমে যাওয়ায় এখন সে কাজগুলি শুরু হবে। করোনাভাইরাস এখনও যায়নি মন্তব্য করে তিনি সকলকে করোনাভাইরাসের টিকা নেওয়া এবং মাস্ক পরিধান করার পরামর্শ দেন। তিনি গতকাল শুক্রবার সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন সিরাজুল হক পৌর মুক্তমঞ্চে আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। পরে তিনি উপজেলার বিভিন্ন ওয়ার্ডের দুঃস্থ শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন।
অনুষ্ঠানে আইন সচিব গোলাম সারোয়ার, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত উদ দৌলা খাঁন, পুলিশ সুপার মো. আনিসুর রহমান, আখাউড়া পৌরসভার মেয়র তাকজিল খলিফা, আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রোমানা আক্তার ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক জয়নাল আবেদীন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আইনমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ