Inqilab Logo

শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

কানাডা ঢুকতে ব্যর্থ হয়ে মুখ লুকিয়ে দেশে ফেরা ডা. মুরাদকে নিয়ে যা লিখলেন নেটিজেনরা

সোশাল মিডিয়া ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ ডিসেম্বর, ২০২১, ১০:২৪ পিএম

কানাডার পর দুবাইয়ে ঢুকতে চেয়েও ব্যর্থ হয়ে হুডি আর মাস্কের আড়ালে মুখ লুকিয়ে দেশে ফিরলেন সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। আজ বিকাল ৫টা ৪ মিনিটে এমিরেটসের ইকে-৫৮৬ নম্বর ফ্লাইটে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান তিনি। ডা. মুরাদের বিদেশ পাড়ি দেয়া থেকে শুরু করে বাধ্য হয়ে তিন দিনের মধ্যে ঢাকায় ফেরত আসা পর্যন্ত প্রতিটা মুহুর্ত নিয়ে ব্যাপক উদ্দিপনা দেখা গেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ডা. মুরাদের মুখ লুকিয়ে দেশে ফেরা নিয়ে ফেসবুকে অসংখ্য মানুষ স্ট্যাটাস দিয়েছেন। একজন দাম্ভিকের পতন কতটা খারাপ হয় তা তুলে ধরে পোস্ট দিয়েছেন সচেতন নাগরিকরা।

গণমাধ্যমের খবরে জানা যায়, মুরাদ হাসান বিমানবন্দরের ভিআইপি গেটের সামনে এলেও সাংবাদিকদের দেখে ভেতরে চলে যান এবং বিমানবন্দরের ভেতর দিয়ে অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে যান। সেখানে বাইরে তার জন্য হোন্ডা সিআরভি ব্র্যান্ডের একটি গাড়ি প্রস্তুত ছিল। দেশে ফেরার সময় মুরাদ হাসানের পরনে ছিল নীল রঙের জিন্স প্যান্ট ও হুডি জ্যাকেট। মাথা ও মুখ ঢেকে গাড়িতে চড়েন তিনি।

ডা. মুরাদের পরিণাম নিয়ে এম এ কবির লিখেছেন, ‘‘বেচারার মন্ত্রী গেছে, দল গেছে, কানাডা-দুবাই ফেরত দিছে, দেশে না আসতে বিমানবন্দরে আম জনতা বিক্ষোভ করছে। তাই এই ব..কে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাঠিয়ে দেয়া হোক!’’

মুস্তাফিজুর রহমান জুবায়েরের পরামর্শ, ‘‘তার উচিত ৪০দিনের জন্য তাবলীগে চলে যাওয়া। এতে করে তার ঈমান-আমলের কিছুটা উন্নতি হবে এবং সেইসাথে তাবলীগে সে নির্বিঘ্নে থাকতে পারবে। ওখানে কেও তাকে খুঁচাবে না।’’

সুশান্ত রায় লিখেছেন, ‘‘মাইকেল মধুসুদন দত্তের সেই কবিতাটির সাথে মিলে গেল। যিনি বাংলাদেশকে অবজ্ঞা করে আমেরিকাতে গিয়ে বিখ্যাত হতে চেয়েছিলেন অবশেষে বাংলাদেশকে ভুলতে পারেননি,, পরে নিজের ভুল বুঝতে পেরেছিলেন।’’

হাসিব আহমেদ লিখেছেন, ‘‘মুরাদ বিদেশ পালিয়ে না গিয়ে দেশে থেকে আইনগত ভাবে সবকিছু মোকাবেলা করলে আপনার অবস্থান পোক্ত হত,আপনি রাজনীতিবিদ মামলা-হামলার ভয় কেন দেশ ছেড়ে পালাবেন?? মামলা-হামলা জেল-জুলুম মোকাবেলা করে আপনাকে টিকে থাকতে হবে।’’

ফারুক আহমেদ লিখেছেন, ‘‘ব্যারিষ্টার মইনুল হোসেন একটি টকসোতে একজন মহিল টকারকে তার কথার প্রতি উত্তরে কিছু "মানহানিকর " কথা বলেছিলেন। তা নিয়ে নারীবাদীরা এ ব্যারিষ্টারের বিরুদ্ধে তুমুল আন্দোলন করে অনেকগুলো মামলা করে শেষ পর্যন্ত জেলের ভাত খাইয়েছিলেন,আর মুরাদ হাসান চরম অশ্লীল কথা বলে নারীজাতীকে অপমান করেও দেশ বিদেশে ঘুরে বেড়াচ্ছে। আর আমাদের নারীবাদীরাও এখানে চুপ। ডালমে কুচ কালা হায়।’’

মোঃরুহুল আমিন লিজন লিখেছেন, ‘‘এখন তাকে আইনের আওতায় নিয়ে এসে শাস্তির ব্যবস্থা করা উচিত,সে তার ক্ষমতার অপব্যবহার করছে,,সে নারীদের সম্মানহানী করছে এজন্য এখন তার শাস্তির জোর দাবী জানাচ্ছি।’’

নুরুল আলম রিয়াদ লিখেছেন, ‘‘ক্ষমতার অপব্যবহার করলে কি পরিনতি হয় দেখলো পুরো দেশবাসি। তাই ক্ষমতার অহংকার ক্ষমতার পাওয়ার দেখানোর চেষ্টা করবেন না। আল্লাহ সহ্য করবে না।’’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডা. মুরাদ কাণ্ড

১৪ ডিসেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ