Inqilab Logo

শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসি আদেশ

স্টাফ রিপোর্টার, কুষ্টিয়া থেকে : | প্রকাশের সময় : ১৪ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

কুষ্টিয়ার মিরপুরে গর্ভবতী স্ত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে স্বামী শাহিনুল ইসলামকে ফাঁসি দিয়েছেন আদালত। গতকাল সোমবার সকালের দিকে কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. তাজুল ইসলাম এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় দ-প্রাপ্ত আসামি শাহিনুল ইসলাম আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

শাহিনুল মিরপুর উপজেলার নওদা খাড়ারা গ্রামের শাজাহান মালিথার ছেলে। হত্যাকা-ের সাত বছর আগে নিহত চম্পা খাতুনের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা থাকা অবস্থায় আসামি তার নিজ বসতবাড়ির শোয়ার ঘরে স্ত্রীর গায়ে আগুন দিয়ে হত্যা করে।
আদালত সূত্র জানায়, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ২০১৪ সালের ৯ অক্টোবর রাত ৩টার দিকে শাহিনুল ইসলাম তার স্ত্রী চম্পার শাড়ি ও ঘরের বেড়ায় কেরোসিন ছিটিয়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। এতে চম্পার শরীরের অধিকাংশ স্থান আগুনে ঝলসে যায়। পরে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চম্পার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহত চম্পা খাতুনের চাচা ও ভেড়ামারা উপজেলার ভাটপাড়া এলাকার আইজুদ্দিনের ছেলে শাহাদাত আলী শাহিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে মিরপুর থানায় মামলা করেন।
মামলার তদন্ত শেষে তদন্তকারী কর্মকর্তা শাহিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। পরে আদালত এ মামলায় সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে ১৩ ডিসেম্বর রায় ঘোষণার দিন ধার্য করেন। ধার্য তারিখে আদালতের বিচারক আসামি শাহিনুলকে ফাঁসির আদেশ দেন। আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করা হয়।
রায় ঘোষণার পরপরই দ-প্রাপ্ত আসামিকে পুলিশ পাহারায় জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।
আদালতের পিপি অনুপ কুমার নন্দী জানান, গর্ভবতী স্ত্রীকে কেরোসিন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যা মামলায় দোষী প্রমাণিত হওয়ায় স্বামী শাহিনুল ইসলামকে ফাঁসি দিয়েছেন আদালত। এ সময় মৃত্যুদ-প্রাপ্ত আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: স্বামীর ফাঁসি আদেশ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ