Inqilab Logo

বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

সতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর স্ত্রী ও স্বজনদের জিম্মি করে মনোনয়ন প্রত্যাহারের হুমকি

সাভার থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ ডিসেম্বর, ২০২১, ৭:১৯ পিএম

ঢাকার সাভার সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর স্ত্রী ও স্বজনদের আটকে জিম্মি করে মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করার হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীর লোকজনদের বিরুদ্ধে।

স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রাথী এডভোকেট আব্দুল আউয়াল মঙ্গলবার এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
এডভোকেট আব্দুল আউয়াল অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, সোমবার বিকালে তার স্ত্রী গাজী খালেদা আক্তার, বোন হাজী রহিমা খাতুন, ছোট ভাইয়ের স্ত্রী আছিয়া আক্তার আখি ও আত্মীয় আছিয়া বেগম আত্মীয়ের বাড়ী থেকে ফেরার পথে সাভারের দক্ষিন কলমা এলাকার আক্কাস আলীর বাড়িতে নামাজ আদায় করে। তখন ৭/৮টি মটরসাইকেল ও একটি মাইক্রোবাসে ১৫/১৭জন সন্ত্রাসী বাড়িটি ঘেরাও করে নানা ধরনের বাজে কথা বলতে থাকে।
তখন তার স্ত্রীসহ স্বজনরা বাড়ি থেকে বেরহলে এক সন্ত্রাসী পিস্তল দেখিয়ে ‘আউয়াল চেয়ারম্যান মনোনয়ন উড্রো না করলে আপনাদের যেতে দিব না, আপনাদের জিম্মি করা হইলো, উড্রো না করলে জীবনে শেষ করে ফেলবো’ এমন হুমকি প্রদান করে। সোহেল চেয়ারম্যান ছাড়া কোন প্রার্থীকে নির্বাচনে থাকতে দিব না।
শ্রমিক লীগের সাভার আঞ্চলিক কমিটির সাধারন সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল আউয়াল বলেন, ওই মুহুর্তে সন্ত্রাসীরা আমার স্ত্রীকে বলে উপজেলায় গিয়ে নমিনেশন তুলে ফেলতে বলেন সোহেল রানা উপজেলায় আছে। তখন হট্টোগোল দেখে লোকজন এগিয়ে এসে জিম্মি দশা থেকে তাদের উদ্ধার করে। পরে সকলের সাথে আলোচনা করে সংশ্লিষ্ঠ প্রশাসনের সকল দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।
অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাভার সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী (বর্তমান চেয়ারম্যান) সোহেল রানার মুঠফোনে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি রিসিভ করেননি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ