Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

নদীর বালু পরিকল্পিতভাবে তোলার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশের সময় : ২৫ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : বিভিন্ন নদী থেকে বালু না তুলে তা পরিকল্পিতভাবে তোলার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার মন্ত্রিসভায় এক অনির্ধারিত আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী প্রয়োজনে স্যাটেলাইটের চিত্র ব্যবহার করে পরিকল্পিতভাবে নদীর বালু তোলার নির্দেশ দিন।
তিনি বলেন, নদীর বালু যত্রতত্র থেকে তোলার ফলে সেতু ও ফসলের মাঠ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া ছাড়াও নদীর পাড় ভাঙনসহ পরিবেশের ওপর বিরূপ প্রভাব ফেলছে। প্রধানমন্ত্রী ভূমি, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ, পানিসম্পদ ও নৌপরিবহন এই চারটি মন্ত্রণালয়কে সুনির্দিষ্ট এলাকা থেকে বালু তোলার নির্দেশ দিয়ে বলেন, ক্ষতির বিষয়টি এড়িয়ে এধরনের কাজ করা উচিত। এজন্য তিনি চারটি মন্ত্রণালয়কে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা ডেকে একটি নীতিমালা প্রণয়নের নির্দেশ দেন। তিনি আরো বলেন, ভূ-উপগ্রহের সাহায্য নিয়ে নদীর তলদেশ বা কোথা থেকে বালু উত্তোলন করলে এধরনের ক্ষতির বিষয়টি এড়ানো যাবে তা জানা যাবে। খেতাবপ্রাপ্ত ও যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের ভাতা বৃদ্ধি ঃ
খেতাবপ্রাপ্ত ও যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা এবং শহীদ পরিবারের মাসিক সম্মানী ভাতা বৃদ্ধি করেছে সরকার। খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা বিতরণ নীতিমালা, ২০১৬’ এর খসড়া এবং খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারবর্গের মাসিক সম্মানী ভাতা বৃদ্ধির প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম প্রেস ব্রিফিংয়ে একথা জানান। ভাতা বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হবে।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা ১৫০ শতাংশ বেড়েছে। এছাড়া যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের এ-শ্রেণির বেড়েছে ৫০ শতাংশ, বি-শ্রেণির ৭৫ শতাংশ, সি-শ্রেণির ৮৭ দশমিক ৫ শতাংশ, ডি-শ্রেণির ১৫৮ শতাংশ, শহীদ পরিবারের ভাতা ১০০ শতাংশ, মৃত যুদ্ধাহত পরিবারের ভাতা ৬৭ শতাংশ ও বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ পরিবারের ভাতা ২৫ শতাংশ বেড়েছে।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, বীরশ্রেষ্ঠ খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা মাসিক ১২ হাজার থেকে বেড়ে ৩০ হাজার টাকা, বীর উত্তমদের ভাতা ১০ হাজার থেকে বেড়ে ২৫ হাজার টাকা, বীর বিক্রমদের
ভাতা ৮ হাজার থেকে বেড়ে ২০ হাজার এবং বীর প্রতীক খেতাবপ্রাপ্তদের ভাতা ৬ হাজার থেকে বেড়ে ১৫ হাজার টাকা হয়েছে।
একই সঙ্গে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের ভাতাও বাড়ানো হয়েছে। সচিব বলেন, যুদ্ধাহত এ-শ্রেণীর (যারা ৯৬ থেকে ১০০ শতাংশ পঙ্গু) মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা ৩০ হাজার থেকে বৃদ্ধি করে ৪৫ হাজার টাকা, বি-শ্রেণির (৬১ থেকে ৯৫ শতাংশ পঙ্গু) যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা ২০ হাজার টাকা থেকে ৩৫ হাজার টাকা, সি-শ্রেণির (যারা ২০ থেকে ৬০ শতাংশ পঙ্গু) যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা ১৬ হাজার টাকা থেকে ৩০ হাজার টাকা, ডি-শ্রেণির (যারা ১ থেকে ১৯ শতাংশ পঙ্গু) ভাতা ৯ হাজার ৭০০ টাকা থেকে বৃদ্ধি করে ২৫ হাজার টাকা করা হয়েছে।
এছাড়া শহীদ পরিবারের সদস্যদের মাসিক ভাতা ১৫ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৩০ হাজার টাকা, মৃত যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ভাতা ১৫ হাজার টাকা থেকে ২৫ হাজার টাকা, বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ পরিবারের ভাতা ২৮ হাজার টাকা থেকে বৃদ্ধি করে ৩৫ হাজার টাকা করা হয়েছে বলেও জানান শফিউল আলম। তারামন বিবি বীরপ্রতীক ক্যাটাগরিতে ভাতা পাবেন বলেও জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, সাতজন বীরশ্রেষ্ঠ, ৬৮ জন বীর উত্তম, ১৭৫ জন বীর বিক্রম এবং ৪২৬ জন বীর প্রতীক খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা রয়েছেন।
এ-শ্রেণির পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধা রয়েছেন ২০ জন, বি-শ্রেণির ১৪৬ জন, সি-শ্রেণির ২ হাজার ৩২৯ জন ও ডি-শ্রেণির ২ হাজার ৫৩২ জন। আর শহীদ পরিবার রয়েছে ২ হাজার ৫০০, যুদ্ধাহত পরিবার ৩০৩, বীরশ্রেষ্ঠ পরিবার ৭টি। সাধারণ মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বৃদ্ধির বিষয়টি বৈঠকে আলোচনায় আসেনি বলে জানান শফিউল আলম।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, একজন একাধিক ভাতা পাবেন না। যারা (খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা) একাধিক ভাতা পান, তারা একটা পাবেন, যেটা সর্বোচ্চ সেটা তিনি পাবেন। দু’টো একসঙ্গে পাবেন না।
সবাইকে ‘ধন্যবাদ’ কাদেরের, আশরাফ চুপ :
ক্ষমতাসীন দলে সাধারণ সম্পাদকের পদ পাওয়ার পর মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠকে অংশ নিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, বেরিয়ে এসে সবাইকে জানিয়েছেন শুভেচ্ছা।
তবে আওয়ামী লীগের গত দুই মেয়াদের সাধারণ সম্পাদক জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সামনে মুখ খোলেননি। সাংবাদিকদের সব প্রশ্ন তিনি এড়িয়ে গেছেন ‘পরে একদিন’ কথা বলবেন জানিয়ে। গত সোমবার সকালে সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে তাদের দু’জনকে নিয়ে সাংবাদিকদের আগ্রহ ছিল তুঙ্গে। বৈঠক শেষে বেরিয়ে কাদের কেবল বলেন, সবাইকে ধন্যবাদ, শুভেচ্ছা। এরপর কোনো প্রশ্নের উত্তর না দিয়ে তিনি বলেন, ধানমন্ডি পার্টি অফিসে সবাই বসে আছে। ওখানে গিয়েই আনুষ্ঠানিকভাবে কথা বলব।
কাদেরের পর আশরাফ বৈঠক থেকে বেরিয়ে এলে সাংবাদিকরা তাকে ঘিরে ধরে একের পর এক প্রশ্ন ছুড়তে থাকেন। কিন্তু এই আওয়ামী লীগ নেতা কোনো প্রশ্নের জবাব না দিয়ে এগিয়ে যান গাড়ির দিকে। যাওয়ার আগে সাংবাদিকদের তিনি বলে যান, আজ কিছু বলব না, সময় হলে অন্য একদিন বলব।
সম্মেলন নিয়ে মন্ত্রীরা চুপ :
নতুন কমিটি গঠনের পরের দিন মন্ত্রিসভার বৈঠকে আওয়ামী লীগের সম্মেলন নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি বলে বৈঠকে উপস্থিত একজন মন্ত্রী জানিয়েছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে তিনি বলেন, মন্ত্রিসভার বৈঠকে কাউন্সিল নিয়ে কোনো কথা হয়নি, প্রধানমন্ত্রীও এ নিয়ে কোনো কথা বলেননি।
বৈঠক শুরুর বেশ কিছুক্ষণ আগেই হাসিমুখে মন্ত্রিসভা কক্ষে প্রবেশ করেন ওবায়দুল কাদের। ফুরফুরে মেজাজে সবার সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি। মন্ত্রিসভার সদ্যসরাও আওয়ামী লীগের নতুন সাধারণ সম্পাদককে অভিনন্দন জানিয়েছেন। আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী মোশাররফ হোসেন মন্ত্রিসভার সদস্যদের মিষ্টিমুখ করান বলেও জানান ওই মন্ত্রী।
মন্ত্রিসভার আরেকজন সদস্য জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মন্ত্রিসভা কক্ষে প্রবেশের পর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান নিজের লেখা পদ্যের একটি সঙ্কলন প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন। প্রধানমন্ত্রী এ সময় ইয়াফেস ওসমান ও তার বাবা কবি শওকত ওসমানকে নিয়ে কথা বলেন। এরপর বৈঠকের কার্যক্রম শুরু হয়।
গবেষক-বিজ্ঞানীদের অবসরের বয়সসীমা বাড়ছে :
বিশেষ মেধা ও যোগ্যতার অধিকারী গবেষক, বিজ্ঞানীদের অবসরের বয়সসীমা সংক্রান্ত অবস্থানপত্র গ্রহণ করেছে মন্ত্রিসভা।
বৈঠকের পর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সচিব বলেন, তিনটি প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। কর্মরত গণপ্রজাতন্ত্রের কর্মচারী বিজ্ঞানী ও গবেষকদের দেশ ও জাতির উন্নয়নে তাদের সৃজনশীল ও উদ্ভাবনী শক্তি নিরবচ্ছিন্নভাবে কাজে লাগানোর জন্য বয়স বড়ানোর লক্ষ্যে ১৯৭৪ সালের পাবলিক সার্ভেন্ট রিটায়ারমেন্ট অ্যাক্ট সংশোধন করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। বয়স কত হবে তা বলা হয়নি।
দ্বিতীয় প্রস্তাবটি হলো- দেশ ও জাতির উন্নয়নে তাদের (বিজ্ঞানী ও গবেষক) যথাযথ কাজে লাগাতে যোগ্যপ্রার্থী নির্বাচনের জন্য মানদ- নির্ধারণ করতে ১৯৭৫ সালের পাবলিক সার্ভেন্ট রিটায়ারমেন্ট রুল সংশোধন প্রস্তাব। সেই রুলের মধ্যে একটি সার্বজনীন মানদ- তৈরি করে দেয়ার প্রস্তাব রয়েছে, যোগ করেন সচিব।
তৃতীয় প্রস্তাব নিয়ে সচিব বলেন, তাদের বিশেষ প্রণোদনা প্রস্তাব রয়েছে। চাকরি বিধি, চাকরির সুযোগ-সুবিধা, আর্থিক সংশ্লেষ ইত্যাদি সার্বিকভাবে বিচার বিশ্লেষণ করে একটি মানদ- তৈরি করা।
বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদসহ কয়েকটি গবেষণা সংস্থায় নিয়োজিত বিজ্ঞানী ও গবেষকদের চাকরির বয়সসীমা ৬৫-তে উন্নীত করার প্রেক্ষাপটে এ প্রস্তাব করে লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগ অবস্থানপত্র পাঠায় মন্ত্রিসভায়।
বৈঠকে বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন আইন-২০১৬, জাতীয় লবণ নীতি-২০১৬’র খসড়া অনুমোদিত হয়। বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন আইন মূলত: পূর্ববর্তী আইনের বাংলা ভাষায় রূপান্তর। এছাড়া জাতীয় লবণ নীতি ৫ বছর মেয়াদে কিছু পরিবর্তনসহ পূর্ববর্তী আইনের সংস্করণ।
শফিউল আলম বলেন, উন্নয়ন ও অনুন্নয়ন উভয় খাতে মন্ত্রিসভা কমিটির আর্থিক ক্ষমতা ৫০ কোটি থেকে ১শ’ কোটি টাকায় বৃদ্ধি করা হয়েছে। এখন এই কমিটি কনসালটেন্সি খাতে উন্নয়ন বাজেটের একটি প্রকল্পে ৩০ কোটি এবং অনুন্নয়ন বাজেটের প্রকল্পে ২০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিতে পারবে।
বৈঠকে থাইল্যান্ডের রাজা ভূমিবল আদুলেদজে এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের ডেপুটি কমিশনার (ডিসি) জাহিদুল ইসলামের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব গৃহীত হয়।
বৈঠকে ব্রিটেনের লেবার পার্টির ছায়া মন্ত্রিসভায় বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক টিউলিপ রেজোয়ানা সিদ্দিকী ও রূপা হক মন্ত্রী হওয়ায় তাদের ধন্যবাদ জানিয়ে এক প্রস্তাব গৃহীত হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নদীর বালু পরিকল্পিতভাবে তোলার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
আরও পড়ুন