Inqilab Logo

শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

মালয়েশিয়ায় দুইদিনের টানা বৃষ্টিতে বন্যা, সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ৬:২১ পিএম

মালয়েশিয়ায় দুই দিনের টানা বৃষ্টির কারণে সৃষ্ট বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। প্রবল বৃষ্টিতে দেশটির পূর্ব উপকূল, মধ্য ও উত্তরাঞ্চলের নিম্নাঞ্চলীয় বেশ কিছু এলাকায় বন্যা সতর্কতা জারি করেছে আবহওয়া অধিদফতর। শনিবার আবহাওয়া অধিদফতর এই বন্যা সতর্কতা জারি করে।
এর আগে শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া টানা বৃষ্টিতে মালয়েশিয়ার বিভিন্ন জায়গায় যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। কিছু কিছু জায়গায় পানিতে তলিয়ে গেছে সড়ক। বন্যার পানিতে ভেসে গেছে সড়কে ভেসে থাকা গাড়ি।
বৃষ্টিতে রাজধানী কুয়ালালামপুরসহ এর আশেপাশের বেশ কিছু এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। এতে জনগণের স্বাভাবিক চলাফেরা ব্যাহত হচ্ছে।
শুক্রবার সকাল থেকে অবিরাম ভারী বর্ষণের ফলে সেলাঙ্গরের শাহ আলম ও ক্লাংয়ের বেশ কিছু আবাসন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। রাত ৯টার দিকে শাহ আলম এলাকায় বন্যার পানি বাড়তে শুরু করে এবং তামান শ্রী মুদা, কোটা কেমুনিং এবং এমনকি কেসাস হাইওয়েতে ক্লাংয়ের দিকে বেশ কয়েকটি বাড়িতে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আবাসিক এলাকায় পানির উচ্চতা হাঁটুর ওপরে ছিলো।
এদিকে, টানা বৃষ্টির কারণে মালয়েশিয়ার নেগ্রি সেম্বিলান রাজ্যের ২৯টি এলাকার মোট ২৭৪ ভুক্তভোগীকে পাঁচটি অস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্রে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। স্থানীয় ফায়ার অ্যান্ড রেসকিউ সার্ভিসেস বিভাগের সহকারী পরিচালক অপারেশন আহমেদ মুখলিস মোখতার জানান, শুক্রবার রাত ১০টা থেকে একটানা বৃষ্টির কারণে তাদের বাড়িঘর প্লাবিত হওয়ার পরে ১১২ বাসিন্দাকে স্থানীয় লুকুটের কেজি পায়া কমিউনিটি হলে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।
এছাড়া শনিবার সিলিয়াউ হিলিরের একটি সুরাউতে ৮৭ জন, কেরু হিলিরের অন্য একটি সুরাউতে ৪২ জন এবং তেলুক কেমাং-এর কেজি পারমাটাং পাসির কমিউনিটি হলে ২৯ জনকে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।
এদিকে ক্ষতিগ্রস্তদের খাদ্য এবং অন্যান্য প্রয়েজনীয় জিনিসের সাহায্য করতে জরুরি ভিওিতে সরকারের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন ক্লাং এমপি চার্লস সান্তিয়াগো।
সরকারি সংবাদ সংস্থা বার্নামা জানিয়েছে, মালয়েশিয়ার আবহাওয়া পরিষেবা বিভাগ কেলান্তান এবং পাহাং-এ অবিরাম ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে আবহাওয়া অধিদপ্তর সতর্কতা জারি করেছে। সূত্র : রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বন্যা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ