Inqilab Logo

বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

করোনায় অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে অনিশ্চিত নাদাল

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

গোটা বছরটাই পায়ের পাতার চোটের জেরে হতাশাজনকই কেটেছে রাফায়েল নাদালের। ফরাসি ওপেনে সেমিফাইনালে হারের পর পুরনো পায়ের চোটের জেরে উইম্বলডনের পাশাপাশি পাশাপাশি সরে যেতে হয়েছে অলিম্পিক্স এবং যুক্তরাষ্ট্রে ওপেন থেকেও। দুঃস্বপ্নের মতো বছরের শেষটাও খারাপ ভাবেই হচ্ছে বিশ্বের প্রাক্তন এক নম্বর টেনিস তারকার। শঙ্কায় পড়েে গেছে তার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলাই!

আগস্টের পর প্রথমবার সদ্য শেষ হওয়া আবু ধাবিতে মুবাদালা বিশ্ব টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপে কোর্টে নেমেছিলেন রাফায়েল নাদাল। সেই টুর্নামেন্ট জিততে না পারলেও অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের আগে গুরত্বপূর্ণ অনুশীলন হয়েছিল কিছুটা। তবে তাতেই বিপত্তি। মরুশহর থেকে দেশে ফিরেই করোনার কবলে নাদাল। নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নাদাল জানিয়েছেন আবু ধাবি থেকে স্পেনে ফেরার পর পিসিআর টেস্টে তার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। নাদাল লেখেন, ‘আমি সকলকে জানাতে চাই যে, আবু ধাবিতে টুর্নামেন্ট খেলে দেশের ফেরার পর স্পেনে করা পিসিআর টেস্টে আমার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।’
এই ঘটনার আগে কুয়েত এং আবু ধাবুতি প্রতিবার টেস্টে নাদালের রিপোর্ট নেগেটিভই আসে। এমন কি গত শুক্রবারও তার যে টেস্ট করা হয়, তাতেও কিছু ধরা পড়েছিল না বলেই দাবি নাদালের। বর্তমানে তার শারীরিক দিক থেকে কিছুটা অস্বস্তি হলেও তিনি দ্রুতই কোর্টে ফেরার বিষয়ে আশাবাদী।
সদ্য নিজের চোট সমস্যা জেরে প্রায় ছয় মাস কোর্টের বাইরে থাকায় পরের মাসে শুরু হতে চলা বছরের প্রথম গ্র্যান্ডস্ল্যাম অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে অংশগ্রহণ করা নিয়ে সন্দিহান ছিলেন রেকর্ড গ্র্যান্ডস্ল্যাম জয়ী (যুগ্মভাবে) তারকা। সেই নিয়ে উদ্বেগ আরও বাড়ল। নিজের শরীরের ওপর নির্ভর করেই আসন্ন বছরে নিজের ক্যালেন্ডার সাজাবেন বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন স্প্যানিশ কিংবদন্তি। নিজের পোস্টেই তিনি লেখেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে আমায় গোটা ক্যালেন্ডারটা নিয়েই ভাবনাচিন্তা করতে হবে। আমি নিজের শারীরিক উন্নতির ওপর নির্ভর করেই গোটা বিষটা বিশ্লেষণ করব। আমি ভবিষ্যতে কোন কোন টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করব, সেই বিষয়ে আমি আপনাদের পরে জানাব।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অস্ট্রেলিয়ান ওপেন

৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
২৩ জানুয়ারি, ২০২০
২২ জানুয়ারি, ২০২০
২৮ জানুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন