Inqilab Logo

সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

সেই পাকিস্তানেই চার মাসে দু’বার যাবে নিউজিল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

গত সেপ্টেম্বরে নিরাপত্তা শঙ্কায় শেষ মুহূর্তে নিউজিল্যান্ড দলের পাকিস্তান সফর বাতিল করা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা কম হয়নি। সেই নিউজিল্যান্ড ২০২২-২৩ মৌসুমে পাঁচ মাসের মধ্যে দুইবার দক্ষিণ এশিয়ার দেশটিতে খেলতে যাবে। সিরিজ চূড়ান্ত হয়ে যাওয়ায় দুই বোর্ডের সংশ্লিষ্টরা মিলে এখন দিন, তারিখ ও ভেন্যু চূড়ান্ত করবেন।
দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড গতকাল আলাদা বিবৃতি দিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। ২০২২ সালের ডিসেম্বর ও ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে তারা খেলবে দুটি টেস্ট ও তিনটি ওয়ানডে। লাল বলের সিরিজটি আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ, ওয়ানডে সিরিজ আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগের অংশ। এরপর ২০২৩ সালের এপ্রিলে আবার পাকিস্তানে যাবে নিউজিল্যান্ড। এই দফায় তারা খেলবে পাঁচটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি। এই ওয়ানডেগুলো অবশ্য সুপার লিগের অংশ নয়।
নিউজিল্যান্ডের প্রথম সফরটি আইসিসি ভবিষ্যৎ সফর সূচির অংশ। দ্বিতীয় দফায় তারা যাবে গত সেপ্টেম্বরে সীমিত ওভারের সিরিজ বাতিল করায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) ক্ষতি পুষিয়ে দিতে। ওই সিরিজে তিনটি ওয়ানডের সঙ্গে টি-টোয়েন্টি ছিল পাঁচটি। এবার সেখানে বাড়তি দুটি ওয়ানডে যুক্ত করা হয়েছে। পাকিস্তান সফরে যেতে পারা দারুণ হবে বলে মনে করেন নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের প্রধান নির্বাহী ডেভিড হোয়াইট, ‘সেখানে (পাকিস্তানে) আবার যেতে পারা হবে দারুণ। দুবাইয়ে দুই বোর্ডের চেয়ারম্যান রমিজ রাজা ও মার্টিন স্নেডেন অত্যন্ত ফলপ্রসূ ও গঠনমূলক আলোচনা করেছেন, যা দুই বোর্ডের বন্ধনকে আরও দৃঢ় করেছে।’
সেপ্টেম্বরে প্রথম ওয়ানডে শুরুর আগ মুহূর্তে নিউজিল্যান্ড সফর বাতিল করায় কড়া সমালোচনা করেছিলেন পিসিবি চেয়ারম্যান রমিজ রাজা। নতুন সিদ্ধান্তে এবারের সিরিজ নিয়ে তিনিও জানান স্বস্তির কথা, ‘দুই বোর্ডের মজবুত, সৌহার্দ্যপূর্ণ ও ঐতিহাসিক সম্পর্ককে প্রতিফলিত করে এই সিদ্ধান্ত। একই সঙ্গে পকিস্তান যে ক্রিকেট পরিবারের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য, তা আরও একবার নিশ্চিত করে।’
২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা দলের বাসে সন্ত্রাসী হামলার পর প্রায় এক দশক নিজেদের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট না দেখা পাকিস্তানের জন্য নিউজিল্যান্ড আর ইংল্যান্ডের দুই ঘোষণা ছিল বড় ধাক্কা। আবার পাকিস্তানের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের আয়োজন নিয়ে সংশয় তৈরি হয় তাতে। কিন্তু অক্টোবর-নভেম্বরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মাঠে চোখধাঁধানো পারফরম্যান্স ছিল পাকিস্তানের, এদিকে মাঠের বাইরে রমিজ রাজার অধীন নতুন বোর্ড দেখাল ক্রিকেটের কূটনৈতিক পরীক্ষায় দারুণ সাফল্য। বিশ্বকাপের পর ঘোষণা আসে, ইংল্যান্ড দল পাকিস্তান সফরে যাবে। এর কিছুদিন পর অস্ট্রেলিয়ারও পাকিস্তান সফরে যাওয়ার ঘোষণা আসে।
এখন নিউজিল্যান্ডের পাকিস্তান সফরে যাওয়ার ঘোষণার মধ্য দিয়ে নিশ্চিত হলো ২০২২ সালের মার্চ থেকে ২০২৩ সালের এপ্রিলের মধ্যে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের মতো তিন পরাশক্তির বিপক্ষে নিজেদের মাটিতে ৮টি টেস্ট, ১১টি ওয়ানডে ও ১৩ টি-টোয়েন্টি খেলবে পাকিস্তান!



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নিউজিল্যান্ড

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ