Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মধ্যে সাইবার যুদ্ধের আশঙ্কা

প্রকাশের সময় : ২৬ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : বিশ্বের দুই পরাশক্তি যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মধ্যে উত্তেজনা চরম আকার নিয়েছে। সারা বিশ্বে নিজেদের পছন্দমতো জায়গায় সৈন্য মোতায়েন করেছে দেশ দুটি। শুধু তাই নয়, যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়ার একেবারে পার্শ্ববর্তী দেশ অর্থাৎ নরওয়েতে সৈন্য মোতায়েনের উদ্যোগ নিয়েছে। এরই মধ্য দিয়ে এই দুই দেশের মধ্যে সাইবার যুদ্ধ শুরুর ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। এদিকে, ক্রেমলিনে পাঠনো সব ই-মেইল হ্যাক করার মতো সরঞ্জাম সিআইএ-এর কাছে আছে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেন, প্রয়োজন হলে হ্যাকও করা হবে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের ই-মেইল হ্যাক করার পর এই হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করা হয়। সে সময় ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক কমিটির মেসেজও হ্যাক করা হয়। যুক্তরাষ্ট্র দাবি করছে, এই সাইবার হামলা চালানোর অনুমতি রুশ কর্মকর্তারা দিয়েছেন। গোপন তথ্য ফাঁসকারী ওয়েবসাইট উইকিলিকসকে এই চুরি করা ই-মেইলগুলো দেয়া হয়। যুক্তরাষ্ট্র একে একটি কৌশল বলে অভিহিত করে। এই ঘটনার প্রেক্ষাপটে বাইডেন হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, এ রকম ঘটনা ঘটানোর কৌশল আমাদেরও জানা আছে এবং প্রেসিডেন্ট পুতিনও নিশ্চয় তা অবগত আছেন। এদিকে নরওয়ের ভায়েরনেসে মার্কিন সৈন্য মোতায়েনের প্রক্রিয়া চলছে। রুশ-নরওয়ে সীমান্ত থেকে প্রায় এক হাজার কিলোমিটার দূরে ভয়েরনেস অবস্থিত। নরওয়ের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে খবরে বলা হয়, মার্কিন সৈন্য মোতায়েনের ব্যাপারে প্রাথমিক আলাপ-আলোচনা চলছে। বিশেষ করে ইউক্রেন ও সিরিয়া সংকট নিয়ে পশ্চিম দুনিয়া ও রাশিয়ার মধ্যে সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে উত্তেজনা চরম আকার ধারণ করে। এরই প্রেক্ষাপটে সৈন্য মোতায়েন নিয়ে আলোচনা চলছে। নরওয়ের একটি পত্রিকায় বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র চাইছে ভায়েরনেসে ৩০০ মেরিন সৈন্য মোতায়েন করতে। ওয়াশিংটন আগামী জানুয়ারি মাসের মধ্যে ভায়েরনেসে এই সৈন্য মোতায়েন করতে চায়। প্রসঙ্গক্রমে উল্লেখ করা যায় যে, নরওয়েতে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাপক সামরিক সরঞ্জাম রয়েছে। এএফপি, ওয়েবসাইট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।