Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

কাশ্মীরে ভারতীয় বাহিনীর ছররা গুলিতে আহতদের অধিকাংশই শিক্ষার্থী

প্রকাশের সময় : ২৬ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : ভারত অধিকৃত কাশ্মীরে চলমান বিক্ষোভ দমনে ভারতীয় বাহিনীর ছোড়া ছররা গুলিতে আহতদের অন্তত ৫০০ জনের বয়স ২০ বছরের নিচে। তাদের বেশির ভাগই স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রী এবং তাদের আক্রান্ত চোখের দৃষ্টি ফিরে পাওয়ার জন্য এখনো সংগ্রাম করে যাচ্ছে। হাসপাতালের রেকর্ড অনুযায়ী, ছররায় আহত মোট ১০৬৫ জনকে শ্রীনগরের শ্রী মহারাজা হরি সিং হাসপাতালে এবং শের-ই-কাশ্মীর মেডিকেল সায়েন্সেস ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ৫২৩ জনই ২০ বছরের নিচে। এ ছাড়াও ১০১ জনের বয়স ১৫ বছরের নিচে এবং ছররায় আহত সবচেয়ে ছোট শিশুটির বয়স ৪ বছর। হাসপাতালের ডাক্তাররা এ ঘটনাকে একটি দুঃখজনক পরিস্থিতির প্রমাণ বলে বর্ণনা করেন। শ্রী মহারাজা হরি সিং হাসপাতালের একজন ডাক্তার বলেন, আহতদের অধিকাংশই ২০ বছরের কম বয়সী। মারাত্মক আঘাতের কারণে তাদের অধিকাংশেরই চোখ নষ্ট হওয়ার পথে। বিগত ১০৭ দিনের মতো কাশ্মীরে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। গত ৮ জুলাই হিজবুল মোজাহিদীন কমান্ডার বুরহান ওয়ানি ভারতীয় বাহিনীর গুলিতে নিহত হলে সমগ্র কাশ্মীরে এ বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। ডাক্তাররা জানান, ছররা গুলিতে চোখে আঘাতপ্রাপ্তদের মধ্যে আরো ৩৭০ জনের বয়স ২১ থেকে ২৫ বছর বয়সের মধ্যে। তাদের মধ্যেও অনেকে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী রয়েছে। এই আহতদের আরোগ্যলাভের জন্য এক বছরেরও বেশি সময় লাগতে পারে বলে তারা জানিয়েছেন। শ্রী মহারাজা হরি সিং হাসপাতালের একজন চক্ষুবিশেষজ্ঞ বলেন, চোখে আঘাত প্রাপ্তদের একাধিকবার সার্জারি অপারেশন করতে হয়েছে। গ্রেটার কাশ্মীর।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ