Inqilab Logo

শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

নোয়াখালীর সেনবাগে মুক্তিযোদ্ধাসহ স্ত্রী-কন্যাকে মারধর

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৩ ডিসেম্বর, ২০২১, ৫:৪৫ পিএম

সেনবাগ উপজেলার কাদরা ইউনিয়নের মগুয়ামিজি বাড়ীতে সম্পত্তি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এক বীর মুক্তিযোদ্ধা ও অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য আবু তাহের, স্ত্রী হাসিনা বেগম (৫৫) এলোপাথাড়ি পিটিয়ে আহত এবং কন্যা গ্রীস প্রবাসীর স্ত্রী রোকসানা আক্তার (২৫) কে গলায় ওড়না পেঁছিয়ে শ্বাসরোধ হত্যা চেষ্টার চালিয়েছে একই বাড়ির আবুল খায়েরের ছেলে আবদুল্লাহ আল মামুন (৩৫), আবু নাছের (৪০) ও তার স্ত্রী সুমি আক্তার (৩০)।

এসময় হামলাকারীরা গ্রিস প্রবাসী মোঃ ইব্রাহিমের স্ত্রী রোকসানার গলার চেইন, কানের দুল ও হাতের মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে যায়। ওই হামলার ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে। এ সময় হামলার শিকার মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের সদস্যদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাদেরকে উদ্ধার করে সেনবাগ উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে তারা আহত মুক্তিযোদ্ধা,তার স্ত্রী ও কন্যাকে হাসপাতালে ভর্তিতে বাধা দেয় ও হামলার চেষ্টা চালায়।

হাসপাতালে চিকিৎসার্ধীন রোকসানা আক্তার অভিযোগ করে জানান প্রতিপক্ষ আবদুল্লাহ আল মামুন, আবু নাছের ও তার স্ত্রী সুমি আক্তার তার ক্রয়কৃত দুই শতাংশ জমিন দখল করতে না পেয়ে বিভিন্ন সময় নানা অজুহাতে ঝগড়া বিবাদ সৃষ্টি চেষ্টা চালায়। ঘটনাদিন তারা বিনা কারনে তাদের বসতঘর লক্ষ্য করে ময়লা ফেলায় বাধা দেওয়া হয়। এ নিয়ে তাদের পরিবারের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। এর প্রতিকার চেয়ে রোকসানা আক্তার বাদী হয়ে সেনবাগ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।
সেনবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. ইমদাদুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। তদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ