Inqilab Logo

বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

বিএনপি সংলাপ নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে

সাংবাদিকদের তথ্যমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

তথ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি গণতান্ত্রিক রীতিনীতিতে বিশ্বাস করে না বলেই সংলাপ নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। গতকাল সোমবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী ওই কথা বলেন।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে প্রেসিডেন্টের সংলাপে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করছে। আমি আশা করবো বিএনপিও অংশগ্রহণ করবে। তাদের আপত্তি বা যে কথাগুলো রাজপথে কিংবা গণমাধ্যমের সামনে বলছে সেগুলো প্রেসিডেন্টকে বলে আসতে পারে। কিন্তু সেটি না করে বরং সংলাপকে বৃদ্ধাঙ্গগুলি দেখানো কাম্য নয়। রাজনীতিতে সংলাপ প্রয়োজন। আলাপ আলোচনা ছাড়া রাজনীতি ও গণতন্ত্র এগিয়ে যায় না। বিএনপি আসলে গণতন্ত্রকে নস্যাৎ করতে চায় বিধায় সংলাপ নিয়ে অবান্তর কথা বলছে ও নানা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে।
মন্ত্রী বলেন, গতবার এবং এবারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন দলীয় প্রতীকে হয়েছে। চতুর্থ ধাপে নির্বাচন হওয়ার পর দেখা যাচ্ছে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আওয়ামী লীগই জয়লাভ করেছে। এর পরের অবস্থান হচ্ছে আওয়ামী লীগের যেসব প্রার্থী মনোনয়ন পাননি তাদের। বিএনপি দলীয়ভাবে নির্বাচন না করলেও স্বতন্ত্র নির্বাচন করেছে এবং প্রার্থীদের জয়লাভের সংখ্যা হাতেগোনা কয়েকজন। আর জাতীয় পার্টির ক্ষেত্রে আরো কম।
তিনি বলেন, এতে প্রমাণিত হয় দেশে আওয়ামী লীগের বিকল্প আওয়ামী লীগই। অন্য কোনো বিকল্প নেই। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সেটিই উঠে এসেছে। এতে বোঝা যায় আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা কোনোভাবেই কমেনি বরং বেড়েছে।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, বেগম জিয়াকে দেশে সর্বোচ্চ চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে। তিনি যেভাবে চেয়েছিলেন সেভাবেই, যে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে চেয়েছিলেন সেই হাসপাতালেই চিকিৎসা নিচ্ছেন। শাস্তিপ্রাপ্ত আসামির ক্ষেত্রে এটি প্রধানমন্ত্রীর নজিরবিহীন মহানুভবতা। তাকে যে বিদেশ পাঠানো যে যায় না, সে নিয়ে আইনমন্ত্রী ইতিপূর্বে ব্যাখ্যা দিয়েছেন।
তিনি বলেন, সাধারণভাবে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা হওয়া উচিত ছিলো সরকারের তত্ত¡াবধানে কোনো একটি সরকারি হাসপাতালে। যেহেতু বিএনপির তত্ত¡াবধানে তার সম্পূর্ণ চিকিৎসা হচ্ছে। এখন যদি খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের কোনো হানি হয় সে জন্য বিএনপি এবং তার চিকিৎসার দায়িত্বে যারা আছেন তারাই দায়ী থাকবেন।
সাংবাদিকরা সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়ায় গণমাধ্যমের ওপর নিয়ন্ত্রণ এবং এ বিষয়ে বাংলাদেশের অবস্থান সম্পর্কে জানতে চান। মন্ত্রী বলেন, সিঙ্গাপুরে চারটি টেলিভিশন চ্যানেল সরকার নিয়ন্ত্রিত। বাংলাদেশে ৩৩টি টিভি প্রাইভেট চ্যানেল সম্প্রচারে আছে। আর সেগুলো সরকার নিয়ন্ত্রিত নয়। সরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আলাদা আছে। সিঙ্গাপুরে হাতেগোনা কয়েকটি পত্রিকা এবং সেগুলো অনেকটাই সরকার নিয়ন্ত্রিত। আমাদের দেশে গণমাধ্যম ও বাকস্বাধীনতা সিঙ্গাপুরসহ বহু উন্নয়নশীল দেশের জন্য উদাহরণ।
চিত্রতারকা জায়েদ খানের মায়ের মৃত্যুতে শোক : চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানের মা শাহিদা হকের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখপ্রকাশ করেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। রত্মগর্ভা সম্মাননায় ভূষিত শাহিদা হক গতকাল সোমবার ভোরে রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সাংবাদিকদের তথ্যমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ