Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

খুলনায় বাবাকে হত্যার পর লাশ সেপটিক ট্যাংকে, ঘাতক ছেলে আটক

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩০ ডিসেম্বর, ২০২১, ১১:৪৭ পিএম

খুলনার রূপসায় বাবাকে খুন করে সেপটিক ট্যাংকে লুকিয়ে রাখার প্রায় ৭ মাস পর লাশ উদ্ধার করলো পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) বিকালে নিহতের ছেলে নিয়ামুল ইসলাম তানভির (১৮) ও সহায়তাকারী জুম্মান (৪০)কে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘাতক নিয়ামুল নিজের হাতে বাবাকে হত্যার বিষয়টি স্বীকার করে।

স্বীকারোক্তিতে নিয়ামুল জানায়, প্রায় ৭ মাস আগে আনুমানিক ২৬ রমজান রাতে এ হত্যার ঘটনা ঘটে। রূপসা উপজেলার আইচগাতীর শোলপুর গ্রামে নিয়ামুল তার সহযোগী জুম্মানকে নিয়ে মশলা বাটার শিল দিয়ে মাথায় আঘাত করে বাবা এনামুল হক ওরফে এন্তে (৫০) কে হত্যা করে। পরবর্তীতে ঐ রাতেই মরদেহ নিয়ামুল তাদের বাড়ির সেপটিক ট্যাংকের ভেতর ফেলে দেয়। এনামুল হক মৃগীরোগী ছিলো। যে কারণে এলাকায় প্রচার হয় যে ভিকটিম মৃগী রোগে মারা গেছে।

জানা যায়, গত ২৯ ডিসেম্বর নিয়ামুল ইসলাম তানভির তার ছোট ভাই নাঈম (১১) কে মারধর করলে এক পর্যায়ে নাঈম চিৎকার করে তার বাবার হত্যার কথা বলতে থাকে। বিষয়টি এলাকাবাসী শুনতে পেলে নিয়ামুল দিঘলিয়ার একটি গ্রামে আত্মগোপন করে। পরে পুলিশ পলাতক তাকে আটক করে এবং এনামুল হক এন্তের গলিত লাশ উদ্ধার করে।

ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করে রূপসা থানার অফিসার ইনচার্জ সরদার মোশাররফ হোসেন জানান এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে এবং গলিত লাশের ময়না তদন্ত সম্পন্ন করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: খুলনা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ