Inqilab Logo

সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

রাজশাহীতে গণিতে ফেল করায় ছাত্রীর আত্মহত্যা

রাজশাহী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩১ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০৫ পিএম | আপডেট : ১২:১৭ পিএম, ৩১ ডিসেম্বর, ২০২১

রাজশাহীতে এসএসসি পরীক্ষায় গণিতে ফেল করায় রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার ইউসুফপুর ইউনিয়নের বেলঘরিয়া পূর্বপাড়া গ্রামের লিটন আলীর মেয়ে সুইটি খাতুন (১৭) নামের এক স্কুলছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিজ ঘরের তীরের সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে ওই স্কুলছাত্রী। নিহত ওই স্কুলছাত্রী রাজশাহীর লিটন আলীর মেয়ে। সে বেলঘরিয়া আব্দুস সাত্তার উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী ছিল।

বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রবিউল ইসলাম জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে চলতি বছর অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ হয়। ঘোষিত ফলাফলে সুইটি খাতুন অন্যান্য বিষয়ে পাস করলেও গণিতে ফেল করে। পরীক্ষায় ফেল করার অপমান সহ্য করতে না পেরে ক্ষোভ ও দুঃখে বাড়িতে নিজকক্ষে গলায় রশি দিয়ে ফাঁস দেয়। বাড়ির লোকজন বিষয়টি আঁচ করতে পেরে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান। কিন্তু চিকিৎসক জানান সেখানে নেওয়ার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। রাজশাহীর চারঘাটের বেলঘড়িয়া আব্দুস সাত্তার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম জানান, মেয়েটি লেখা পড়ায় অনেক ভালো ছিলো। কিন্তু এক বিষয়ে ফেল করায় সে আত্মহত্যা করেছে। ঘটনাটি হৃদয় বিদারক।

রাজশাহীর কাটাখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ছিদ্দিকুর রহমান জানান, এসএসসি পরীক্ষায় গণিতে ফেল করায় সুইটির নামের একছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। ঘটনাটি খুবই কষ্টদায়ক। তিনি আরও জানান, সুইটির মা আমাদের স্টাফ। তিনি থানায় বুয়ার কাজ করেন। অনেক কষ্ট করে তিনি মেয়েকে লেখাপড়া শেখাচ্ছিলেন। আজ মেয়েটি মায়ের অজান্তেই এমন ঘটনা ঘটিয়েছে। এ ঘটনায় পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই নিহতের লাশ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আত্মহত্যা

৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ