Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

জবি শিক্ষার্থীকে মারধর : প্রতিবাদে বাস ভাঙচুর

প্রকাশের সময় : ২৭ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

জবি প্রতিনিধি : হাফ ভাড়া নিয়ে বিতর্কের জেরে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) নবম ব্যাচের মেহেদী নামের এক শিক্ষার্থীকে মারধর করেছে বিহঙ্গ পরিবহনের শ্রমিকরা। এর প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ওই পরিবহনের প্রায় আটটি বাস ভাঙচুর করেছে। বুধবার সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত রায়সাহেব বাজার ও বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় এই ভাঙচুর চালায় জগন্নাথের শিক্ষার্থীরা। এ সময় ওই এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল থেকে শিক্ষার্থীরা বিহঙ্গ পরিবহনের বাসগুলো ভাঙচুর করতে থাকে এবং দু’টি বাস ক্যাম্পাসে নিয়ে আটকে রাখে। এর ফলে বিহঙ্গ পরিবহনের বাসগুলো গুলিস্তান থেকে সদরঘাট রুটে সাময়িক বন্ধ থাকে। জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে মেহেদী নামের এক শিক্ষার্থী মিরপুর থেকে সদরঘাটে ফেরার পথে বিহঙ্গ পরিবহনের সুপারভাইজারের সঙ্গে হাফ ভাড়া নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এসময় গাড়ির হেলপার এসে ওই শিক্ষার্থীকে মারধর করে। একপর্যায়ে মেহেদীকে বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। পরে বংশাল চৌরাস্তার মোড়ে গাড়ি রেখে পালিয়ে যায় গাড়ির স্টাফরা। খবর পেয়ে বংশাল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং গাড়িটি জব্দ করে। জব্দকৃত গাড়ির নম্বর-ঢাকা মেট্রো-জ ১১-৩১৮৭। আহত শিক্ষার্থীকে মিটফোর্ড হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেলে স্থানান্তরের পরামর্শ দেন। মেহেদীর মাথার আঘাত গুরুতর বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। তিনি ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. নুর মোহাম্মাদ বলেন, আমরা কোনো ধরনের অভিযোগ পাইনি। তবে শিক্ষার্থীকে মারধর এবং বাস ভাঙচুরের ঘটনা শুনেছি। আমরা এ ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা সমাধানের জন্য বাস মালিকদের সাথে আজ (বৃহস্পতিবার) বসব এবং ভবিষ্যতে যেন এ ধরনের সমস্যা না হয় সে ব্যাপারে উদ্যোগ নেবো।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ