Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

কর্ণফুলীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের আহ্বান

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৪ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৬ এএম

আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী আগামী ১৫ দিনের মধ্যে কর্ণফুলী নদীর আনু মাঝির ঘাট থেকে হালদার মোহনা পর্যন্ত এলাকায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের দাবি জানিয়েছেন চট্টগ্রাম নদী ও খাল রক্ষা আন্দোলনের নেতারা। গতকাল সোমবার কর্ণফুলী নদীতে নৌকায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান তারা। অবৈধ স্থাপনা নির্ধারিত সময়ে উচ্ছেদ করা না হলে বিষয়টি হাইকোর্টকে অবহিত করার কথাও জানান তারা।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সভাপতি চৌধুরী ফরিদ বলেন, দখলে-দূষণে কর্ণফুলী ভরাট হয়ে যাচ্ছে। ২০১৪ সালে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক ও চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের যৌথ উদ্যোগে পরিচালিত ‘মাস্টার প্ল্যান ফর চিটাগাং পোর্ট’ শীর্ষক জরিপে নদীর প্রবহমান ধারা ছিলো ৮৮৬ দশমিক ১৬ মিটার। কয়েকটি অংশে নদীর বর্তমান প্রবহমান ধারা মাত্র ৪১০ মিটার।
সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আলীউর রহমান বলেন, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ, জেলা প্রশাসক ও চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে কর্ণফুলী নদী ভরাট ও দখল হয়ে যাচ্ছে। গত অক্টোবর মাসে জেলা প্রশাসক এক মাসের মধ্যে কর্ণফুলী নদীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ কার্যকম শুরু করার ঘোষণা দিয়েছিলেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত উচ্ছেদ কার্যক্রম শুরু হয়নি। তাই সরকারি সংস্থা কর্তৃক হাইকোর্টের আদেশ না মানার বিষয়টি হাইকোর্টকে অবহিত করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২১
২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ