Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুট ৫ ঘন্টা পর ফেরি চলাচল শুরু

লৌহজং (মুন্সীগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:৪৪ পিএম

ঘন কুয়াশার কারণে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ও মাঝিরকান্দি নৌরুটে ভোর ৪টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। টানা ৫ ঘন্টা পর সকাল ৯টার দিকে ফেরি চলাচল আবার শুরু হয়। আজ বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) ভোর ৪টার দিকে কুয়াশার তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় ফেরি সার্ভিস বন্ধ রাখে ঘাট কর্তৃপক্ষ। পরে কুয়াশা কেটে গেলে পুনরায় ফেরি চলাচল স্বাভাবিক করা হয়। তবে দীর্ঘ সময় ফেরি বন্ধ থাকায় ঘাটে আটকা পড়ে শতশত যানবাহন, দুর্ভোগে পড়েন দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের যাত্রীরা।
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশন বিআইডব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাটের এজিএম শফিকুল ইসলাম জানান, সন্ধ্যা রাত থেকেই কুয়াশা ছিলো। তবে ভোর রাতে কুয়াশার তীব্রতা বেড়ে যায়। তাই দুর্ঘটনা এড়াতে ফেরি সার্ভিস বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ভোর ৪টা থেকে ৯টা পর্যন্ত ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছিল। ৫ ঘন্টা পর ফেরি চলাচল স্বাভাবিক করা হয়েছে। এ রুটে ৪টি কে-টাইপ (মিডিয়াম) ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। পাঁচ ঘণ্টা ফেরি বন্ধ থাকায় ঘাটের দুই পাড়ে প্রায় সহস্রাধিক যানবাহন আটকা পড়ে। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যানজটের জটলা কমে যায় । গতকাল বুধবারও এ রুটে কুয়াশার কারনে ৩ঘন্টা ফেরি সার্ভিস বন্ধ ছিলো।

উল্লেখ্য: গত ২০২১ সালের নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকে শিমুলিয়া ঘাট থেকে বাংলাবাজার ঘাটে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত এবং একই মাসের শেষ সপ্তাহ থেকে শিমুলিয়া ঘাট থেকে মাঝিরকান্দি নৌরুটে বিকেল ৩টা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত ফেরি চলাচল শুরু হয়।
গত বছরের জুলাই ও আগস্ট মাসে চারবার পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কা লাগে। ফলে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে টানা ৪৭ দিন ফেরি চলাচল বন্ধ রাখে কর্তৃপক্ষ। সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কার ঘটনায় ফেরির মাস্টারদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। দুর্ঘটনা এড়াতে গত বছর নভেম্বরের ৪ তারিখে এ নৌরুটে ৪টি মিডিয়াম ফেরিতে ছোট যানবাহন শুধু দিনের বেলা পারাপারের সিদ্ধান্ত নেয় বিআইডব্লিউটিসি। সেই সাথে পদ্মা সেতু এড়িয়ে সোজাসুজি শিমুলিয়া-মাঝিরকান্দি নতুন নৌরুটে রাতে ফেরি চলাচল শুরু করে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফেরি চলাচল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ