Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

টিকা না নেয়াদের জীবন ‘দুর্বিষহ’ করে তুলবেন ম্যাখোঁ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১১:৫৬ পিএম

ফ্রান্সে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নেওয়া সত্তে¡ও দেশটির যেসব মানুষ এখনও টিকা নেননি, তাদের জীবন ‘দুর্বিষহ’ করে তোলা হবে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ। সা¤প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে এ সতর্কবার্তা দিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার ফ্রান্সের জাতীয় দৈনিক লা পারিসিয়েনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ম্যাখোঁ বলেন, ‘আমি তাদের জেলে পাঠাব না। জোর করে টিকা দেওয়ার কোনো ইচ্ছে সরকারের নেই। আমি শুধু তাদের বলতে চাই- যারা এখনও টিকা নেননি, আগামী ১৫ জানুয়ারির পর থেকে তারা রেস্তোরাঁ, ক্যাফে ও থিয়েটারে যেতে পারবেন না। বাইরে গিয়ে এক কাপ কফি খেতে হলেও যেন টিকার সনদপত্র প্রদর্শন করতে হয়- সে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’

‘সোজা কথায়- আমরা তাদের জীবন দুর্বিষহ করে তুলব এবং যতদিন আমি (ক্ষমতায়) আছি, ততদিন এই প্রক্রিয়া চলবে।’

২০২০ সালে মহামারি শুরুর পর থেকে বিশ্বের যেসব দেশ কোভিডজনিত কারণে সবচেয়ে বিপর্যয়কর সময় পার করছে, সেসবের মধ্যে অন্যতম ফ্রান্স। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ১ কোটি ৫ লাখ ৮৯ হাজার ৫০৫ জন এবং এ রোগে মৃত্যু হয়েছে মোট ১ লাখ ২৪ হাজার ৫৬৩ জনের।

করোনার নতুন রূপান্তরিত ধরন ওমিক্রনের প্রাদুর্ভাবে ফ্রান্সে বর্তমানে ফের উর্ধ্বমুখী হয়েছে সংক্রমণের হার। গত সপ্তাহে প্রায় প্রতিদিনই দেশটিতে করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ২ লাখেরও বেশি মানুষ।

সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে গত বছর ফ্রান্সে হেলথ পাসের প্রচলন হয়, যার কারণে কোভিড শনাক্তকরণ পরীক্ষার ‘নেগেটিভ’ ফল বা টিকা নেওয়ার প্রমাণপত্র ছাড়া দেশটিতে কেউ রেস্তোরাঁ, ক্যাফে বা অন্য কোনো ভেন্যুতে ঢুকতে পারছেন না।

ফ্রান্সের সরকার এখন এই হেলথ পাসকে ‘ভ্যাকসিন পাসপোর্টে’রূপান্তরিত করতে চাইছে, যা হলে কেবল টিকা নেওয়ারাই ওই হেলথ পাস পাবেন। তবে তারপরও দেশটির অনেক নাগরিক এখনও টিকা নেওয়া থেকে নিজেদের বিরত রাখছেন। সরকারি হিসেব অনুযায়ী, ফ্রান্সে টিকা না নেওয়া মানুষের সংখ্যা বর্তমানে ৫০ লাখের কিছু বেশি।

এদিকে, দেশটিতে ৪ মাসেরও কম সময়ের মধ্যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হবে। এবারের নির্বাচনে ম্যাখোঁ অংশ নেবেন কিনা তা নিয়ে এখনও চ‚ড়ান্ত কোনো ঘোষণা না এলেও তার প্রতিদ্ব›িদ্বতা করার সম্ভাবনা প্রবল। জনমত জরিপগুলোতেও ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্টের স্পষ্ট ব্যবধানে এগিয়ে থাকার চিত্র মিলছে। এর মধ্যই মঙ্গলবার প্রকাশিত এক সাক্ষাৎকারে টিকা না নেওয়াদের একহাত নিলেন ম্যাক্রো।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অবশ্য বিরোধীরা টিকা না নেওয়াদের প্রতি ম্যাখোঁর এমন মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন। এর আগেও ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের অনেক ‘আলগা কথার’ ব্যাপক সমালোচনা হয়েছে। ‘একজন প্রেসিডেন্টের এমনটা বলা উচিত নয়। ইমানুয়েল ম্যাখোঁ তার দায়িত্বের যোগ্য নন,’- টুইটারে বলেছেন ফ্রান্সের কট্টর ডানপন্থি রাজনীতিক মেরি লো পেন। স‚ত্র : বিবিসি

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টিকা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ