Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু ময়না তদন্ত শেষে সৎকার

সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৮ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০২ এএম

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে গভীর রাতে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনে ময়না তদন্ত শেষে সৎকার করা হয়েছে। গত বুধবার ভোর রাতে উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের মালতলা গ্রামের নিরুবিন্দু বর্মনের ছেলে সুবাসের স্ত্রী সাথী রানী (২৫) বিষপানে আত্মহত্যা করেছে বলে ওই পরিবারের পক্ষ থেকে প্রচার করা হয়। কিন্তু সাথীর বাবার পরিবারের পক্ষ থেকে এ মৃত্যুকে সন্দেহজনক দাবি করে থানায় অভিযোগ দেয়া হলে তার লাশের ময়না তদন্ত করা হয়। সাথী উপজেলার রামজীবন ইউনিয়নের বেকাটারী গ্রামের মৃত্যু অনিল বর্মনের মেয়ে।

এলাকাবাসি জানায়, গত ৬ বছর পূর্র্বে পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে হয়। সৃষ্টি বর্মন নামে তাদের ৪ বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। কয়েকদিন থেকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বাকবিতন্ডা চলে আসছিল। গত বুধবার সকালে সাথী রানীর ভাই বোনের বিষপান করে মৃত্যুর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃত্যুর বিষয়টি সন্দেহজনক মনে হলে থানায় অভিযোগ করেন। পরে ওইদিনে পুলিশ সাথীর লাশের সুরতহাল করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। ময়না তদন্ত শেষে গত বৃহস্পতিবার লাশ সৎকার করে।

এ বিষয়ে বামনডাঙ্গা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নজমুল হুদা বলেন, সংসারে স্বামী-স্ত্রী মধ্যে একটু ঝগড়া হতেই পারে। তবে আবেগের বসে বিষপান করে মৃত্যুর বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। এবিষয়ে থানার ওসি আব্দল্লাহ্লি জামান বলেন, বুধবার সকালে গৃহবধূর সন্দেহজনক মৃত্যুর অভিযোগ পাই। এরই প্রেক্ষিতে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়। রিপোর্ট পেলে অভিযোগের ভিত্তিতে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু ময়না তদন্ত শেষে সৎকার
আরও পড়ুন