Inqilab Logo

সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

‘খালেদা জিয়ার ক্যারিশমেটিক নেতৃত্বকে ভয় পায় সরকার’

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০১ এএম

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক স্পিকার ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার বলেছেন, বিএনপির চেয়ারপাসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী গুরুতর অসুস্থ বেগম খালেদা জিয়ার ক্যারিশমেটিক নেতৃত্বই সরকারের সবচেয়ে বড় ভয়। তিনি বলেন, সবাই চায় খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দেয়া হোক। বিদেশে চিকিৎসার জন্য পাঠালে সরকারের অসুবিধা কোথায়? একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে চিকিৎসার জন্য বিদেশ যেতে দিলে কি এমন হয়? সরকার তো ছেড়ে দিতেই পারেন। বাইরে সুযোগ দিলে এমন কি ক্ষতি হবে? তিনি কী ক্ষতি করতে পারবেন? আশা করি চিকিৎসার জন্য সরকার সুযোগ দিবেন। গতকাল শুক্রবার বিকেলে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) মিলনায়তনে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে নিবেদন করে ‘মুক্তির পঙক্তিমালা’ শীর্ষক এক কবিতা পাঠ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
জমির উদ্দিন সরকার বলেন, মূলত সরকারের সবচেয়ে বড় ভয় হচ্ছে খালেদা জিয়ার কারিশম্যাটিক নেতৃত্ব। সেজন্যই খালেদা জিয়া কখন কি করে বসেন সরকারের সেই আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। সাবেক এই স্পিকার বলেন, খালেদা জিয়া নিরাপদ মানে হচ্ছে দেশ ও দেশের গণতন্ত্র নিরাপদ। তিনি সুন্দরভাবে রাষ্ট্র পরিচালনা করেছেন। ক্ষমতায় যেতে কখনো অন্যায়ের সঙ্গে আপোস করেননি বরং দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছেন। বিশ্বের সকল রাষ্ট্রের সাথে বন্ধুত্ব সৃষ্টি করেছেন। দেশে গণতন্ত্র নষ্ট হোক এমনটা কখনো চাননি। যে যুক্তরাষ্ট্র আমাদের সম্মান করেছে তারা আজ কেনো নিষেধাজ্ঞা দিবে?
জমির উদ্দিন সরকার বলেন, ইতিহাসকে বিকৃত করে কেউ কখনো সত্যকে আড়াল করতে পারেনি। বর্তমানে যারা ক্ষমতায় রয়েছে তারাও এটি করতে পারবেন না। মুক্তিযোদ্ধাদের প্রকৃত তালিকা না করায় এ সরকারের সমালোচনা করেন। এখন শুধু দেশের জন্য বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি চাওয়া হচ্ছে। খালেদা জিয়ার জন্য নয়। আর তাকে নিয়ে উল্টোপাল্টা কথা বলে রাজনীতিকে ঘোলাটে না করার আহ্বান জানান তিনি। এসময় তিনি খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবি জানান।
মানবসেবা সংঘের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের নেতা সঞ্জয় দে রিপন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, সহ প্রচার সম্পাদক মো. আসাদুল করিম শাহীন, মৎস্যজীবী দলের সদস্যসচিব মো. আবদুর রহিম, ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক আমিনুর রহমান আমিন, বিএনপি নেত্রী অ্যাডভোকেট ফারজানা শারমিন পুতুল প্রমুখ। অনুষ্ঠানে কবিতা পাঠ করেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের প্রফেসর শেখ মনির উদ্দিন জুয়েল, নাট্যকলার সাবেক প্রফেসর ড. সাইফুল হক, সাংবাদিক মুজতাহিদ ফারুকি, কবি ও সাবেক ছাত্রনেতা আহসান উদ্দিন খান শিপন, আহমেদ সাইমুম, খালেদা ফেরদৌস, গোবিন্দ চাঁদ কুন্ডু, মারুফ হোসেন, কাজী ফখরুল ইসলাম, মো. মিজানুর রহমান প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: খালেদা জিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ