Inqilab Logo

সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

কাজাখস্তানে অস্থিরতাকে কেন্দ্র করে আটক ৭,৯৩৯

আলমাটি শহরে পুনরায় ইন্টারনেট সেবা চালু

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৫ এএম

কাজাখস্তানের বৃহত্তম আলমাটি শহরে সোমবার পুনরায় ইন্টারনেট সেবা চালু হয়েছে। ভয়াবহ সহিসংতার প্রেক্ষিতে পাঁচদিন ধরে শহরটি বিদ্যুতবিহীন অবস্থায় ছিল শহরটি। সহিংসতায় বেশ কিছু লোক নিহত এবং দেশটির অর্থনৈতিক কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত আলমাটির ১৮ লাখ বাসিন্দা চরম উদ্বেগ ও উৎকন্ঠায় দিন কাটায়। কাজাখস্তানের সাবেক রাজধানী আলমাটি গত বুধবার থেকে পুরোপুরি অফলাইনে ছিল। তবে স্থানীয় ও বিদেশী ওয়েবসাইটগুলো সোমবার থেকে তাদের কার্যক্রম শুরু করেছে। এদিকে সাবেক সোভিয়েতভুক্ত কাজাখস্তানের স্বাধীন ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ এই সহিংসতার কারণে এক দিনের শোক ঘোষণা করা হয়েছে।

কাজাখস্তানে গত সপ্তাহের অস্থিরতাকে কেন্দ্র করে এ পর্যন্ত সাত হাজার ৯৩৯ জন লোককে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। সোমবার দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একথা জানিয়েছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টাসের’ এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। সোভিয়েত আমলের পর মধ্য এশিয়ার দেশটির ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ সহিংসতা চলাকালে বেশ কয়েকটি শহরে বিক্ষোভকারীরা সরকারি ভবনগুলো কিছু সময়ের জন্য দখল করে রাখে বা সেগুলোতে আগুন দেয়। জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ শুরু হলেও তা বিস্তৃত হয়ে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে। এসব সহিংসতার জন্য দেশটির কর্তৃপক্ষ ‘চরমপন্থি’ ও ‘সন্ত্রাসীদের’ দায় দিয়েছে, এদের মধ্যে কিছু বিদেশিও আছে বলে অভিযোগ করেছে তারা।
দেশদ্রোহীতার সন্দেহে দেশটির জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার সাবেক প্রধান করিম মাসিমভকে গত সপ্তাহে আটক করা হয়। এর আগে প্রেসিডেন্ট কাসেম জোমার্ট তোকায়েভ গোয়েন্দা প্রধানের পদ থেকে মাসিমভকে বরখাস্ত করেন, এর তিন দিনের মধ্যেই তাকে আটক করা হয়।
তোকায়েভ তার মন্ত্রিসভাকেও বরখাস্ত করেছেন। ১ কোটি ৯০ লাখ জনসংখ্যার তেল সমৃদ্ধ দেশটিতে জরুরি অবস্থা জারি করে অস্থিরতায় ইতি টানতে গুলি করে হত্যার নির্দেশ জারি করেছেন। রাশিয়ার নেতৃত্বাধীন আঞ্চলিক একটি সামরিক জোটকে সেনা পাঠানোর অনুরোধও জানিয়েছেন তিনি। কাজাখস্তানের কৌশলগভাবে গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানগুলো পাহারা দেওয়ার জন্য এসব সেনা মোতায়েন করা হয়েছে বলে দেশটির সরকার জানিয়েছে।
রাশিয়ার ও কাজাখস্তানের রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকারের করা পোস্টের উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে, সহিংসতা চলাকালে ১৬৪ জন নিহত হয়েছেন। কিন্তু দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও পুলিশের কর্তৃপক্ষ নিহতের এ সংখ্যা নিশ্চিত করেনি আর এরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে করা পোস্টও সরিয়ে ফেলা হয় বলে জানিয়েছে রয়টার্স।
সোমবার দেশটির স্বরাষ্ট্র সচিব ইয়ারলান কারিন রাষ্ট্রায়ত্ত টেভিশনে বলেন, ‘আমার মনে হয়, কোনো এক ধরনের ষড়যন্ত্রে দেশীয় ও বিদেশি কিছু ধ্বংসাত্মক শক্তি জড়িত ছিল’। তবে সন্দেহভাজন কারও নাম উল্লেখ করেননি তিনি। সূত্র : রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কাজাখস্তান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ