Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

বঙ্গবন্ধু স্বদেশে ফিরে বাঙালি জাতিকে মুক্তির মহামন্ত্রে উজ্জীবিত করেছিলেন

কক্সবাজারে আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় বক্তারা

কক্সবাজার ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১০ জানুয়ারি, ২০২২, ৯:৫৬ পিএম

"বঙ্গবন্ধু সেদিন বীরের বেশে স্বদেশে ফিরে এসেছিলেন বলেই বাঙ্গালী জাতি আজ উন্নত সুখি সমৃদ্ধ একটি সোনার বাংলাদেশ পেয়েছে। তিনি দেশে আসতে না পারলে হয়তো ইতিহাস অন্যরকম হতো। বঙ্গবন্ধুর দেশে ফিরে আসার অনুপ্রেরণাকে শক্তি হিসেবে ব্যবহার করে তাঁরই সুযোগ্য উত্তরসূরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ দেশ বীরত্বের সাথে এগিয়ে যাচ্ছে।

শুধু তাই নয়, শেখ হাসিনার হাত ধরে আগামী দিনে বিশ্বের রোল মডেলে রূপান্তর হবে লাল সবুজের এই বাংলাদেশ। তবে সে লক্ষে আওয়ামী লীগের সকল নেতাকর্মীকে আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে হবে।

১০ জানুয়ারী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন।

জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা আরো বলেন, “ঐতিহাসিক ১০ জানুয়ারি মহান মুক্তিযুদ্ধের ধারাবাহিক ইতিহাসের একটি অনন্য মাইলফলক। ১৯৪৭ সালে ভ্রান্ত দ্বি-জাতি তত্ত্বের ভিত্তিতে দেশভাগের মধ্যদিয়ে পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী পূর্ব বাংলার মানুষকে নতুন করে পরাধীনতার নিকষ অন্ধকারে নিপতিত করে। ইতিহাসের মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবিসংবাদিত নেতৃত্বে দীর্ঘ আন্দোলন-সংগ্রামের পথপরিক্রমায় পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে দুর্বার প্রতিরোধ গড়ে তোলে বাঙালি জাতি। বাঙালি জাতিকে মুক্তির মহামন্ত্রে উজ্জীবিত করে স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের পথে এগিয়ে নিয়ে যান শেখ মুজিবুর রহমান।

বঙ্গবন্ধুর নির্দেশিত পথে বাঙালি জাতি দখলদার পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে দীর্ঘ নয় মাসের রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের মধ্যদিয়ে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বিজয় অর্জন করে। বিশ্ব-মানচিত্রে অভ্যুদয় ঘটে স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের।”

আলোচনা সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান।

পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল করের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় সাবেক সাধারণ সম্পাদক সালাহ উদ্দিন আহমদ, সহ-সভাপতি অধ্যাপিকা এথিন রাখাইন, রেজাউল করিম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আশেক উল্লাহ রফিক এমপি, এডভোকেট রনজিত দাশ, মাহবুবুল হক মুকুল, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান চৌধুরী, এডভোকেট তাপস রক্ষিত, ইউনুস বাঙ্গালী, আব্দুল খালেক, ড.নুরুল আবছার, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি নজিবুল ইসলাম, জেলা যুবলীগের সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুর, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল হক সোহেল, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস.এম সাদ্দাম হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনান, জেলা শ্রমিক লীগের আহবায়ক শাহেদুল আলম রানা, পৌর আওয়ামী লীগ নেতা ডা.পরিমল কান্তি দাশ, শাহনেওয়াজ চৌধুরীসহ সংশ্লিষ্টরা বক্তব্য রাখেন।

এছাড়াও সভায় জেলা আওয়ামী লীগ, জেলা যুবলীগ, জেলা ছাত্রলীগ, জেলা শ্রমিক লীগসহ সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন ইউনিটের গুরুত্বপূর্ণ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সোমবার সকাল ৬টায় জাতীয় এবং দলীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল ১১টায় শহরের লালদিঘীর পাড়স্থ দলীয় কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন, দোয়া এবং মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কক্সবাজার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ