Inqilab Logo

শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

ইমেল ফাঁস, লকডাউনে পার্টি করেছিলেন বরিস জনসন

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ জানুয়ারি, ২০২২, ১১:৩৭ এএম

বিতর্কে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ফাঁস ইমেল। করোনাকালে লকডাউনের বিধি ভেঙে তিনি পার্টি করেছিলেন। তার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ নিয়ে তদন্ত চলছে।

২০২০ সালের মে মাসের ঘটনা। দেশজুড়ে তখন লকডাউন চলছে। জমায়েত, পার্টি সবকিছুর উপরই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। সেই সময় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে ৪০ জনকে নিয়ে গার্ডেন পার্টি করেছিলেন জনসন। ব্রডকস্টার আইটিভি জানাচ্ছে, ইমেলের মাধ্যমে আমন্ত্রণ জানানো হয় অতিথিদের। সেই ইমেল তারা দেখেছে। ‘ব্রিং ইয়োর ওন অ্যালকোহল’(নিজের মদ নিজে আনো) গার্ডেন পার্টির আয়োজন করেছিলেন জনসন।

সে সময় মাত্র দুইজন বাড়িতে মিলিত হতে পারতেন। পাব, রেস্তোরাঁ সব বন্ধ। তখন জনসন এই পার্টি করেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রিন্সিপাল প্রাইভেট সেক্রেটারি মার্টিন রেনল্ডস এই ইমেল একশজনেরও বেশি কর্মীকে পাঠিয়েছিলেন। সেই ইমেলে বলা হয়েছিল, ''ভয়ংকর ব্যস্ত সময়ের পর সুন্দর আবহাওয়ার সুযোগ নিন। আমরা সামাজিক দূরত্ব মেনে ১০ নম্বরের বাগানে সন্ধ্যায় সমবেত হবো। দয়া করে ছয়টার সময় আসবেন এবং নিজের মদ নিজে নিয়ে আসবেন।'' আইটিভি জানিয়েছে, জনসন তার স্ত্রী সহ মোট ৪০ জন সে দিন পার্টি করেছিলেন।

জনসনের বিরুদ্ধে লকডাউনের বিধিভঙ্গের অভিযোগ নতুন নয়। ২০২০ সালে তিনি ১০ ডাউনিং স্ট্রিটে একাধিক পার্টি করেছেন বলে অভিযোগ। একজন উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মকর্তা এরকম পাঁচটি পার্টির অভিযোগ নিয়ে তদন্ত করছেন।

সোমবার বরিস জনসনকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, তিনি ও তার স্ত্রী কি করোনা বিধিভঙ্গ করে পার্টি করেছিলেন? তার কোনো জবাব প্রধানমন্ত্রী দেননি। তবে বিরোধী দলগুলি বরিস জনসনের তীব্র সমালোচনা করেছে। বিরোধী লেবার পার্টি, স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টি সকলেই বরিসের সমালোচনায় মুখর হয়েছে। সূত্র: এএফপি, রয়টার্স, ডিপিএ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাজ্য


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ