Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ০১ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

বিকাশ প্রতারকের খপ্পরে পরে সর্বস্ব হারালেন শিক্ষার্থী

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি | প্রকাশের সময় : ১২ জানুয়ারি, ২০২২, ২:০৪ পিএম

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় বিকাশ প্রতারকের খপ্পরে পরে ৩ লাখ ২৩ হাজার ৭শ‘ টাকা খুইয়েছেন কলেজ পড়ুয়া আসমা (২২) নামের এক শিক্ষার্থী। মঙ্গলবার দুপুরে পৌর শহরের ফেরিঘাট এলাকার রুপ টেলিকম নামের একটি বিকাশের দোকানে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি পৌর এলাকায় টক অফ দ্যা টাউনে পরিনত হয়েছে। আচমা পাশ্ববর্তী আমতলী সরকারী ডিগ্রী কলেজের ডিগ্রী দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। সে সেকান্দারখালী গ্রামের বাবুল হাওলাদারের মেয়ে।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী আসমা জানান, তার মোবাইলে এক প্রতারক একটি রবি নাম্বার দিয়ে মোবাইল করে জানান যে তাকে শিক্ষা বোর্ড থেকে ফোন দেয়া হয়েছে এবং উপবৃত্তি বাবদ তাকে ১০ লাখ টাকা দেয়া হবে। তবে তাকে আগে ৪ লাখ টাকা পাঠাতে হবে। পরে আচমা ১৩ টি নাম্বারে ২৪ হাজার ৯ শ‘ টাকা করে মোট ৩ লাখ ২৩ হাজার ৭শ‘ টাকা পাঠানোর পরই ওই প্রতারক সকল নাম্বার বন্ধ করে দেন।

রুপ টিলিকমের মালিক সুব্রত ঘরামী বলেন, টাকা সেন্ট করার পর তার বোধগম্য হয়। তবে মহিলা সাথে সাথে পরিশোধ করবে বলে বিশ্বাস করে ওই টাকা সেন্ট করেছেন বলে তিনি জানান।

সংশ্লিস্ট পৌর কাউন্সিলর মো.তারিকুজ্জান তারেক বলেন, বিষয়টি রুপ টেলিকমে মালিক সুব্রত ঘরামী তকে জানায়। পরে সমাধানের জন্য ওই শিক্ষার্থীর অভিভাবককে খবর দিয়ে আনা হয়েছে।
কলাপাড়া থানার ওসি মো.জসিম সাংবাদিকদের জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ