Inqilab Logo

বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

চলছে নকশাবহির্ভূত নির্মাণ

বগুড়া পৌরসভা

বগুড়া ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ১৩ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৩ এএম

প্রথম শ্রেণির বগুড়া পৌরসভায় বাড়িঘর ও অন্যান্য অবকাঠামো নির্মাণে প্রভাবশালীরা থোড়াই কেয়ার করছেন। প্রায়ই নকশায় আছে একটা কিন্তু প্রভাবশালী নির্মাণকারীরা নির্মাণ করছেন, তার নিজের খেয়াল খুশিমত। ভুক্তভোগী লিখিত অভিযোগ দিলে সেই অভিযোগ আমলে নেয়ার নামে অভিযুক্তকে নোটিশ করে শুনানির দিন ধার্য্য করে সময় ক্ষেপণ করা হয়। সেই ফাঁকে প্রভাবশালী নির্মাণকরীরা দ্রুতগতিতে তার নির্মাণ কাজ শেষ করার সুযোগ নিচ্ছেন। সম্প্রতি জানা যায়, বগুড়া পৌরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার ঠনঠনিয়া দরবার শরীফের পীরজাদা মরহুম ওসমান গনীর বড় ছেলে শাব্বীর আহম্মেদ ওসমানী তার প্রতিবেশি এবং দরবার শরীফ সংলগ্ন অধিবাসি এবং বেসরকারি অনুপম হাসপাতাল ভবনের মালিক সিরাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে গত বছরের ৭ ডিসেম্বরে পৌর মেয়র বরাবরে একটি দরখাস্ত দেন। লিখিত অভিযোগে দরখাস্তকারী জানান, তার প্রতিবেশি পৌরবিধি না মেনে নিজের সীমানা ক্রস করে ভবন নির্মাণ করেছেন। পাশাপাশি তিনি (অভিযুক্ত সিরাজুল ইসলাম ) পৌরসভা থেকে তিনতলা ভবনের নকশা অনুমোদন করে ৫-৬ তলা ভবনের নির্মাণকাজ অব্যাহত রেখেছেন।

এটা প্রতিবেশিদের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ বিধায় তিনি তদন্তের স্বার্থে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দিয়ে আবেদন করেন। বিধি মোতাবেক পৌর কর্তৃপক্ষ এটিকে কেস হিসেবে গ্রহণ করে বিবাদীকে কাজ বন্ধের নির্দেশ সম্বলিত নোটিশ করেছেন। নোটিশে ২০ জানুয়ারি বাদী-বিবাদীকে পৌর আদালতে হাজিরা দিতে বলেছেন। ফলে এই ২০ তারিখের হাজিরার সুযোগ নিয়ে দিব্যি মিস্ত্রি লাগিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। কোনোভাবেই তাকে আটকানো যাচ্ছেনা বলে জানিয়েছেন শাব্বির আহম্মেদ ওসমানী।
ঠিক একই ধরনের সমস্যা বিরাজ করছে বগুড়া পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডের পাড়া ও মহল্লায়। পৌরসভা নিয়ম মাফিক ভুক্তভোগীর অভিযোগ নিয়ে নথিভুক্ত করছে। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। ভুক্তভোগীদের মতে নকশা বহির্ভূত নির্মাণ এখন বগুড়ার প্রভাব ও বিত্ত্বশালীদের নেশায় পরিণত হয়েছে।
নকশা বহির্ভূত নির্মাণকাজ সম্পর্কে কি পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে জানতে চাইলে বগুড়া পৌরসভার নগর পরিকল্পক মেহেদী হাসান জানান, কমপক্ষে ২০০ জনকে নোটিশ করা হয়েছে। প্রসেস চলছে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বগুড়া পৌরসভা

১৩ জানুয়ারি, ২০২২
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ