Inqilab Logo

রোববার, ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

হুমকিতে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ

বন বিভাগের গোলগাছ কেটে বসতবাড়ির রাস্তা নির্মাণ ঘটনাস্থল কলাপাড়ার নীলগঞ্জ ইউনিয়ন

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৪ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৫ এএম

পটুয়াখালীর কলাপাড়ার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের লস্করপুর গ্রামে সামুদ্রিক বন্যা নিয়ন্ত্রণ বেড়ি বাঁধের বাইরে প্রকৃতির সবুজ দেয়াল সৃজিত গোলগাছ কেটে মধ্যে বসতবাড়ির যাতায়াতের রাস্তা ও প্রবাহমান খালে বাঁধ দিয়ে তৈরি করা হয়েছে মাছের ঘের।

বাঁধ রক্ষা করে জনপদকে। আর বাঁধকে রক্ষা করে গোলগাছের বাগান। কিন্তু সেই গোলগাছ কেটে সাফ করে করা হচ্ছে লোকের বসতবাড়ির রাস্তা ও মাছের ঘের। কলাপাড়া উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের লস্করপুর গ্রামের বাঁধের বাইরে এই চিত্র পাওয়া গেছে। সেখানে বন বিভাগের সৃজন করা গোলগাছ কেটে বসবাড়ির ও রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছে। ফলে বর্ষার সময় এ বাগানে পানিবদ্ধতা সৃষ্টি হবে। এতে বাগানের গাছ মারা যাবে। হুমকির মুখে পড়বে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ও পরিবেশ ।

এ বিষয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন, যারা এখানে দখলবাজ আছেন তারা প্রভাবশালী হওয়ায় দীর্ঘদিন ধরে সরকারি খাল দখল করে গোল গাছ, কেওড়া গাছ কেটে মাছের ঘের ও রাস্তা নির্মাণ করে আসছে। আর বন বিভাগেরও এতে যোগসাজশ আছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের বাইরে সৃজিত গোলগাছ কেটে বসতঘরে যাতায়াতের রাস্তা বাঁধ দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে মাছের ঘের। আইউব আলী, ইউনুস নামের এক ব্যক্তি সেখানে গোলগাছ কেটে পরিষ্কার করে ঘরের যাতায়াতের রাস্তা করেছেন। গোলগাছের বাগানে ঘর ও রাস্তা নির্মাণ করা আইউব আলী বলেন, ঘর নির্মাণ করেছি আমার রেকর্ডিও জমিতে। বন বিভাগেরর কর্মকর্তাদের অনুমতি নিয়েই গোলগাছ কেটে রাস্তা নির্মাণ করেছি। উপজেলা বন কর্মকর্তা আবদুস ছালাম বলেন, খবর শুনে লস্করপুর গ্রামে গিয়ে কাজ বন্ধ করে দিয়েছি। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হুমকিতে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ