Inqilab Logo

রোববার, ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

আমেরিকাকে হুমকি উত্তর কোরিয়ার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ জানুয়ারি, ২০২২, ৩:৪১ পিএম

আমেরিকার সাম্প্রতিক নিষেধাজ্ঞা নিয়ে মুখ খুলল উত্তর কোরিয়া। আমেরিকার পদক্ষেপকে পক্ষপাতদুষ্ট এবং উস্কানিমূলক বলে ব্যাখ্যা করা হলো।

সম্প্রতি সমুদ্রে মিসাইল পরীক্ষা করেছে উত্তর কোরিয়া। জাপান এবং দক্ষিণ কোরিয়া প্রাথমিকভাবে মনে করেছিল, উত্তর কোরিয়া পরমাণু অস্ত্রের পরীক্ষা করেছে। কিম জং উন পরে জানান, হাইপারসনিক মিসাইলের পরীক্ষা হয়েছে। ওই পরীক্ষার পরেই উত্তর কোরিয়ায় ব্যালেস্টিক মিসাইল পরীক্ষার সঙ্গে যুক্ত বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে আমেরিকা। উত্তর কোরিয়ার উপর একাধিক মার্কিন এবং জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা আছে, নতুন নিষেধাজ্ঞা তার উপর যুক্ত হলো।

নতুন মার্কিন নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ার পরে এবার মুখ খুলল পিয়ংইয়ং। তাদের দাবি, সম্পূর্ণ বিনা কারণে আমেরিকা নতুন নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। উত্তর কোরিয়ার সরকারি সংবাদপত্রে বৃহস্পতিবার দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্রের একটি বিবৃতি ছাপা হয়েছে। সেখানে কার্যত আমেরিকাকে হুমকি দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, আমেরিকার নতুন নিষেধাজ্ঞার সামনে মাথা নত করবে না পিয়ংইয়ং। আত্মরক্ষার্থে নতুন নতুন অস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়ে যাওয়া হবে।

উত্তর কোরিয়ার দাবি, কোনো দেশকে লক্ষ্য করে নতুন মিসাইলের পরীক্ষা করা হয়নি। নিজেদের অস্ত্রভান্ডার এবং সামরিক শক্তির আধুনিকীকরণের উদ্দেশ্যেই এই পরীক্ষা করা হয়েছে। কোনো দেশের যাতে ক্ষতি না হয়, সে দিকে লক্ষ্য রাখা হয়েছিল। এরপরেই আমেরিকাকে এক হাত নিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আমেরিকা বরাবরের মতো দাদাগিরি চালানোর চেষ্টা করছে। উত্তর কোরিয়া তাতে ভয় পায় না।

একটি সংবাদমাধ্যমে এ বিষয়ে মুখ খুলেছেন আমেরিকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন। তিনি এদিন বলেছেন, উত্তর কোরিয়া একের পর এক অস্ত্রের পরীক্ষা করে শক্তিসাম্য নষ্ট করছে। ইচ্ছে করেই তারা এ কাজ করছে। ভবিষ্যতেও উত্তর কোরিয়া এভাবে আরো অস্ত্রের পরীক্ষা করতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি। এ দিন ব্লিংকেন বলেছেন, অস্ত্রের পরীক্ষা বন্ধ করে উত্তর কোরিয়া যদি আলোচনার টেবিলে চায়, আমেরিকা তাকে স্বাগত জানাবে। সূত্র: এএফপি, রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র-উত্তর কোরিয়া
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ