Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৪ মাঘ ১৪২৮, ১৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ডাকাতি ও হত্যা মামলা দায়ের

আড়াইহাজারে ৩ জনকে পিটিয়ে হত্যা

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০১ এএম

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ডাকাত আখ্যা দিয়ে লেগুনা মালিক ও দুই চালককে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় ‘ডাকাতি ও হত্যা’ মামলা দায়ের করা হয়েছে। দুই মামলায় নিহত তিনজনসহ ২৫০ জনের বেশি অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।
গতকাল শুক্রবার বিকেলে রূপগঞ্জ উপজেলার ফকির ফ্যাশন ফ্যাক্টরীর বাস ড্রাইভার মো. হানিফা বাদী হয়ে ডাকাতির মামলা দায়ের করেন। আর আড়াইহাজার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রহমান ঢালী হত্যা মামলা দায়ের করেন। এছাড়াও সকালে সোনারগাঁও উপজেলার এশিয়ান হাইওয়ে সড়কে নিহতের ঘটনায় দোষীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ করেছে নিহতের স্বজন ও এলাকাবাসী।
আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিচুর রহমান জানান, গণপিটুনিতে তিনজন নিহতের ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। একটি করেছেন শ্রমিকদের বহনকারী বাসচালক ও অন্যটি পুলিশ। এর মধ্যে পুলিশের হত্যা মামলায় ২০০ থেকে ২৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। আর বাসচালকের ডাকাতি মামলায় নিহত তিন জনের নাম উল্লেখ ও ১৪ থেকে ১৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।
ডাকাতি মামলায় বাদী বাসচালক মো. হানিফা উল্লেখ করেন, প্রতিদিনের মতো ১৩ জানুয়ারি সকাল ৫টায় ফকির ফ্যাশন প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকদের আনতে প্রতিষ্ঠানের বাসে আড়াইহাজার উপজেলার সিংহদী ও আপরদী এলাকা থেকে কয়েকজন শ্রমিকদের নিয়ে ইলমদী পাকা রাস্তার মোড়ে পৌঁছা মাত্র অজ্ঞাত পরিচয় ১৪ থেকে ১৫ জন ডাকাত সদস্য ২টি লেগুনা গাড়িতে শ্রমিকবাহী বাসের সামনে এসে গতিরোধ করে। দুটি লেগুনা থেকে ৫ থেকে ৭জন ডাকাত সদস্য বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র হাতে নিয়ে আমাদের বাসে উঠে আমাকে সহ বাসে থাকা ৯ জন শ্রমিককে প্রাণ নাশের ভয়ভীতি দেখায়। এসময় বাসের শ্রমিকদের কাছ থেকে নগদ টাকা, মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে বাস থেকে নেমে যায়। এসময় ইলুমদী মোড়ে বাসের জন্য অপেক্ষমান শ্রমিকেরা বাসের দিকে আসতে থাকে। তখন আমি সহ বাসের শ্রমিকেরা ডাকাত বলে চিৎকার করলে ডাকাতরা পালানোর চেষ্টা করে। এসময় তিনজন ডাকাতকে আটক করে স্থানীয়রা। পরে আমরা বাসে শ্রমিকদেও নিয়ে ফকির ফ্যাশন প্রতিষ্ঠানে চলে যাই। পরে জানতে পারি স্থানীয় জনতা আটক তিনজকে গনপিটুনি দিয়ে হত্যা করে। তিনি আরো উল্লেখ্য করেন, ৩ জন ডাকাত সহ অজ্ঞাত পরিচয় ১১ থেকে ১২জনের পড়নে প্যান্ট, গেঞ্জি, শার্ট ও জ্যাকেট ছিল। ডাকত সদস্যরা স্থানীয় আঞ্চলিক ভাষা সহ বিভিন্ন আঞ্চলিক ভাষায় কথাবার্তা বলছিল। ডাকাত সদস্যদের বয়স ২০ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে। বিষয়টি প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে থানা অভিযোগ দেওয়া হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডাকাতি ও হত্যা মামলা

১৫ জানুয়ারি, ২০২২
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ