Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৪ মাঘ ১৪২৮, ১৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

করোনা টিকা নিয়েই হাঁটতে শুরু করেছেন শয্যাশায়ী ব্যক্তি! আশ্চর্য দাবি ঘিরে শোরগোল

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৪:৩৮ পিএম | আপডেট : ১০:২১ এএম, ১৬ জানুয়ারি, ২০২২

২০২১ সালের জানুয়ারিতে দেশজুড়ে শুরু হয়ে গিয়েছিল কোভিড টিকাকরণ। গত ১ বছরে টিকার বণ্টন থেকে শুরু করে টিকাকরণের গতি— নানা বিষয়েই বিতর্ক হতে দেখা গিয়েছে। সেই সঙ্গে টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়েও নানা কথা উঠেছে। যদিও সেই অর্থে টিকার কোনও রকম পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার দাবিই ধোপে টেকেনি।

এরই মধ্যে ঝাড়খণ্ডের এক প্রৌঢ় এমন দাবি করে বসলেন যা শুনলে চোখ কপালে উঠতে বাধ্য। ওই ব্যক্তির দাবি, চার বছর ধরে শয্যাশায়ী থাকার পরে তিনি চাঙ্গা হয়ে গিয়েছেন করোনা টিকার প্রথম ডোজেই! তার এমন বিচিত্র দাবিতে শোরগোল এলাকায়। ব্যাপারটা ঠিক কী? বোকারোর পেটারওয়ার গ্রামের বাসিন্দা দুলারচাঁদ। বয়স ৪৪। চার বছর আগে এক ভয়ংকর দুর্ঘটনার কবলে পড়ার পর থেকেই তিনি শয্যাশায়ী। হারিয়েছেন হাঁটাচলার শক্তি। এমনকী কথা বলার ক্ষমতাও।

এমন দুলারচাঁদ গত ৪ জানুয়ারি টিকার প্রথম ডোজ নেন। পরদিন থেকেই তার শরীরে নাকি নানা বাহ্যিক পরিবর্তন চোখে পড়ে সকলের। দেখা যায়, কেটে যাচ্ছে শারীরিক স্থবিরতা। এরপর সকলকে অবাক করে তিনি আবার হাঁটতে শুরু করে দেন বিছানা থেকে নেমে! যা দেখে তাজ্জব সবাই। এও নাকি দেখা গিয়েছে, হারানো কণ্ঠস্বরও ফিরে পেয়েছেন ভদ্রলোক।

স্বাভাবিক ভাবেই তার এমন দাবি ঘিরে চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে এলাকায়। সংবাদ সংস্থা এএনআইকে দুলারচাঁদ জানিয়েছেন, ‘‘টিকা নিয়ে দারুণ আনন্দ পেয়েছিল। ৪ তারিখ টিকা নেওয়ার পর থেকেই আমার পায়ের সাড় ফিরে এসেছে।’’

দুলারচাঁদ ও তাঁর পরিবারের দাবিতে বিস্মিত চিকিৎসকরাও। বোকারোর সিভিল সার্জন ড. জিতেন্দ্র কুমার এপ্রসঙ্গে সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় জানিয়েছেন, বিষয়টা সত্যিই বিস্ময়কর। তা বলে এটা কোনও অলৌকিক ঘটনা নয়। তিনি পুরো ঘটনাটি খতিয়ে দেখতে একটি মেডিক্যাল টিম গঠনের আরজি জান‌িয়েছেন। সূত্র: টাইমস নাউ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ