Inqilab Logo

শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

মাদরাসা-ই-আলীয়ার ভূমিতে অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান স্থাপন করা যাবে না - মাদরাসা-ই-আলীয়ার প্রাক্তণ ছাত্রবৃন্দ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:৫১ পিএম | আপডেট : ৬:৫৫ পিএম, ১৫ জানুয়ারি, ২০২২

মাদরাসা-ই-আলীয়ার প্রাক্তণ ছাত্রবৃন্দের এক সভায় গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলা হয় যে, ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান মাদরাসা-ই-আলীয়ার নিজস্ব ভূমিতে সম্প্রতি সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক মাদরাসা ও কারিগরী শিক্ষা অধিদপ্তর স্থাপনের সিদ্ধান্তের তীব্র ক্ষোভ ও উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। উক্ত সভায় প্রাক্তণ ছাত্রবৃন্দ উল্লেখ করেন যে, মাদরাসা-ই-আলীয়ার ছাত্রাবাসের মূল ফটকসহ প্রায় ৩৭ শতাংশ জমি জোর করে দখল করে উক্ত অধিদপ্তর স্থাপনের পায়ঁতারা এবং ছাত্রদের ন্যায্য দাবিতে উপেক্ষা করে প্রতিবাদকারীদের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা দেয়া, ছাত্রদের নানাবিধ হুমকি ধমকি এ সবই মাদরাসা-ই-আলীয়াকে ধ্বংস করার গভীর চক্রান্ত ও নীলনকশার অংশ।

তারা বলেন, আমরা অবিলম্বে এহেন অযৌক্তিক সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে আহ্বান জানাচ্ছি। সাথে সাথে আমরা বলতে চাই এই মাদরাসা অঙ্গণে জমি দখলের চেষ্টা না করে অন্য যে কোন স্থানে উক্ত প্রতিষ্ঠান স্থাপন করলে আমরা স্বাগত জানাবো।

আজ শনিবার বিকেলে পুরানা পল্টনে মাদরাসা-ই-আলীয়ার প্রাক্তণ ছাত্র মাওলানা সুরুজুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, মাওলানা আজিজুল হক মুরাদ, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, কাজী ছাইফউদ্দিন, অধ্যাপক আব্দুল হামিদ, মুহাম্মদ হাবিবুল্লাহ, মোহাম্মদ ইসমাইল ফারুক, এএমএম কামাল উদ্দিন, কেএম শরীয়াতুল্লাহ, মো. মিজানুর রহমান, মুহাম্মদ আব্দুর রহমান ও মুহাম্মদ জহিরুল ইসলাম।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ