Inqilab Logo

রোববার, ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সংক্রমণ বাড়ার মধ্যে শ্রেণিকক্ষে ক্লাস বর্জন করে প্রতিবাদ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৭ এএম

কোভিড-১৯ সংক্রমণ ফের ছড়িয়ে পড়ার মধ্যে শ্রেণিকক্ষে সরাসরি উপস্থিতিতে চলা ক্লাস বর্জন করে প্রতিবাদ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টন ও শিকাগোর কয়েকশ শিক্ষার্থী। করোনাভাইরাসের ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের কারণে যুক্তরাষ্ট্রে রেকর্ড রোগী বৃদ্ধি ঘটছে, ফলে দেশজুড়েই শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের সরাসরি উপস্থিতির মাধ্যমে ক্লাস নেওয়ার উদ্যোগ বিঘ্নিত হচ্ছে, এ পরিস্থিতিতে সরাসরি উপস্থিতির বদলে অনলাইন ক্লাসের দাবি জানিয়েছে প্রতিবাদী ওই শিক্ষার্থীরা। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটির তৃতীয় বৃহত্তম স্কুল ডিস্ট্রিক্ট শিকাগোতে ৩ লাখ ৪০ হাজার শিক্ষার্থীর জন্য শ্রেণিকক্ষে সরাসরি পাঠদান শুরু হওয়ার দুই দিন পর শুক্রবার ক্লাস ছেড়ে যাওয়ার ঘটনাটি ঘটে। এর আগে কোভিড থেকে সুরক্ষায় কঠোর বিধিনিষেধ আরোপের দাবিতে শিক্ষক ইউনিয়নের কর্মবিরতিতে পাঁচ দিন ক্লাস বন্ধ ছিল। পরে শিকাগো পাবলিক স্কুল (সিপিএস) ডিস্ট্রিক্ট ও মেয়র লরি লাইটফুটের সঙ্গে অতিরিক্ত স্বাস্থ্য প্রটোকল নিয়ে সমঝোতা হওয়ার পর শিক্ষক ইউনিয়ন কর্মবিরতি প্রত্যাহার করে। কিন্তু প্রতিবাদী শিক্ষার্থীরা জানিয়েছে, তারা অতিরিক্ত স্বাস্থ্য প্রটোকল নিয়ে অসন্তুষ্ট। শিকাগোর ডিস্ট্রিক্ট সদরদপ্তরে কয়েক হাজার শিক্ষার্থীর এক সমাবেশে জোন্স কলেজ প্রেপ হাই স্কুলের ছাত্র জাডেন হর্টেন বলেন, “আমার ধারণা সিপিএস শুনতেছে, কিন্তু তারা পরিবর্তন করবে বলে নিশ্চিত নই আমি।” নগরীর বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জন করে বের হয়ে আসার পর এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এখানে উপস্থিত হওয়া বোস্টন লাতিন স্কুলের দশম গ্রেডের শিক্ষার্থী আশ ও’ব্রায়েন জানান, স্কুলে অবস্থান করতে নিরাপদ বোধ করেননা তিনি। “বাড়িতে আমার দাদা-দাদী আছে, তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম। তাই আমি স্কুলে যেতে চাই না, কারণ তাদের অসুস্থ হয়ে পড়ার ঝুঁকি আছে,” বলেন তিনি। বোস্টনের স্কুল ডিস্ট্রিক্টের তথ্য অনুযায়ী, বোস্টনের ছাত্র উপদেষ্ট পরিষদের আহ্বানে সাড়া দিয়ে নগরীর ১১টি স্কুলের প্রায় ৬০০ শিক্ষার্থী ক্লাস বর্জন করে, পরে তাদের কেউ কেউ ক্লাসে ফিরে এলেও অন্যরা শন্তিপূর্ণ প্রতিবাদ শেষে বাড়িতে চলে যায়। স্কুলগুলোকে ‘কোভিড-১৯ ব্রিডিং গ্রাউন্ড’ অভিহিত করে বোস্টনের এক শিক্ষার্থীর করা অনলাইন পিটিশনে শুক্রবার সকালের মধ্যে ৮ হাজারেরও বেশি স্বাক্ষর পড়েছে। পিটিশনে সরাসরি শ্রেণিকক্ষে উপস্থিতির পরিবর্তনে অনলাইলে ক্লাস নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। বোস্টন ছাত্র উপদেষ্টা পরিষদ টুইটারে ধারাবাহিক কয়েকটি দাবি পেশ করেছে, সেগুলোর মধ্যে দুই সপ্তাহের জন্য অনলাইনে ক্লাস নেওয়া ও ছাত্র-শিক্ষক উভয়ের জন্য কঠোর কোভিড-১৯ পরীক্ষা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে ফের করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঢেউ শুরু হয়েছে, এরমধ্যে স্কুল খোলা না বন্ধ রাখা হবে তাই নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। অতি সংক্রামক ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের কারণে শিশুরা একাডেমিকভাবে ফের পিছিয়ে যেতে পারে এমন উদ্বেগে কর্মকর্তারা পরিস্থিতির একটি ভারসাম্যপূর্ণ সামাধান বের করার চেষ্টা করছেন। শিক্ষার্থীরা তাদের বিশ্বাসের পক্ষে কথা বলছে এবং তাদের উদ্বেগ শোনার দাবি জানাচ্ছে, একে তারা সমর্থন করেন বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে বোস্টন পাবলিক স্কুলস (বিপিএস)। রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ