Inqilab Logo

সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

ঢাকার অষ্টাদশ শতাব্দীর ইতিহাস নিয়ে বিটিভির ধারাবাহিক জিন্দাবাহার

বিনোদন রিপোর্ট: | প্রকাশের সময় : ১৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৬ এএম

নাট্যকার-অভিনেতা ও নির্দেশক মামুনুর রশীদের রচনায় নির্মিত হয়েছে বিটিভির দীর্ঘ ধারাবাহিক ‘জিন্দাবাহার’। ঢাকার অষ্টাদশ শতাব্দীর ইতিহাস নিয়ে এটি নির্মিত হয়েছে। প্রযোজনা ও নির্দেশনায় রয়েছেন ফজলে আজিম জুয়েল। আজ থেকে ৫২ পর্বের ধারাবাহিকটির প্রচার শুরু হচ্ছে। রবি, সোম ও মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টায় প্রচার হবে। অভিনয় করেছেন মামুনুর রশীদ, লুৎফর রহমান জর্জ, আজাদ আবুল কালাম, আহমেদ রুবেল, অনন্ত হীরা, শতাব্দী ওয়াদুদ, শাহ আলম দুলাল, সমু চৌধুরী, শামীম ভিস্তি, শ্যামল জাকারিয়া, রোজী সিদ্দিকী, মুনিরা বেগম মেমী, নাজনীন চুমকি, শর্মীমালা, নাইরুজ সিফাত, নিকিতা নন্দিনী, আলিফ চৌধুরী, সাদমান প্রত্যয়, ইউসুফ রাসেল, শাকিলসহ আরো অনেকে। মামুনুর রশীদ বলেন, ‘ঢাকা শহরটা খুব অভাগিনী। কয়েকবার রাজধানী পরিবর্তিত হয়েছে। ঢাকার দুঃখ-দুদর্শা নিয়ে গবেষণা হলেও সেভাবে কোনো ফিকশন নির্মিত হয়নি। একসময় জিনজিরা প্রাসাদও ঝলমলে ছিল। পরবর্তীকালে পরিত্যাক্ত হয়ে যায়। রাজধানী মুর্শিদাবাদে স্থানান্তরিত হলে ঢাকাও একসময় পরিত্যাক্ত হয়ে পড়ে। তখন ঢাকার অবস্থা কেমন ছিল? এসবেরই প্রতিচ্ছবি আছে ‘জিন্দাবাহার’ নাটকে। একপর্যায়ে আবার নীলকুটি স্থাপন, মসলিনশিল্পের বিপ্লবের মধ্য দিয়ে ধীরে ধীরে ঢাকা আবার সরব হতে থাকে। আসলে আমাদের ঢাকার অনেক করুণ ইতিহাস আছে। আমার অনেকদিনের ইচ্ছে ছিল তা নিয়ে কিছু লেখা। সেই প্রয়াস থেকেই ‘জিন্দাবাহার’। জিন্দা মানে জীবিত আর বাহার হলো বসন্ত। আসলে ঢাকা একটা জীবিত বসন্তের জায়গা।’ নির্মাতা ফজলে আজিম জুয়েল জানান, ‘২০০ বা ৩০০ বছর আগের ইতিহাস নিয়ে বাংলা নাটক কিংবা টেলিভিশন চ্যানেলে সেভাবে কাজ হয়নি। সে সময়ের ঢাকা আমাদের কাছে অনেকটাই অজানা। দীর্ঘ এই ধারাবাহিকের মধ্য দিয়ে এ সময়ের দর্শকরা অষ্টাদশ শতাব্দীর ঢাকাকে জানতে পারবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিটিভির ধারাবাহিক জিন্দাবাহার
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ