Inqilab Logo

বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে ইহুদি সিনাগগে ৪ জনকে পণবন্দি

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১০:২৩ এএম

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যে ইহুদিদের উপাসনালয় সিনাগগে অবস্থান নিয়েছেন সশস্ত্র এক ব্যক্তি। ‘বন্দির মুক্তির দাবিতে’ সেখানে অবস্থান নিয়ে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি কমপক্ষে চারজনকে জিম্মি করেছেন বলে শোনা যাচ্ছে। এ ঘটনায় সিনাগগটি ঘিরে রেখেছে পুলিশ। একইসঙ্গে অভিযুক্তের সঙ্গে আলোচনাও চালিয়ে যাচ্ছে তারা।
ইহুদি ধর্মাবলম্বীদের ওই উপাসনালয়টি টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের কোলেভিল শহরে অবস্থিথ। রোববার (১৬ জানুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। অবশ্য চারজনকে পণবন্দি করার পর অভিযুক্ত ওই সশস্ত্র ব্যক্তি কারও ক্ষতি করেছেন কি না তা এখনও জানা যায়নি।
বিবিসি বলছে, টেক্সাসের কোলেভিল শহরে অবস্থিত ওই সিনাগগে সশস্ত্র এক ব্যক্তি অবস্থান নেওয়ার পর সেখান থেকে ঘটনাটি সরাসরি সম্প্রচার করা হচ্ছিল। পরে অবশ্য সরাসরি সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়া হয়। কিন্তু এর আগেই রাগান্বিত একজন ব্যক্তিকে বলতে শোনা যায় যে, তিনি কাউকে আঘাত করতে চান না।
ঘটনার পরপরই পুলিশ সদস্যরা সিনাগগটি ঘিরে ফেলে এবং স্থানীয় মানুষদের সেখান থেকে সরিয়ে নেয়। নাম প্রকাশ না করার শর্তে মার্কিন আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দুই কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বর্তমানে জিম্মি হিসেবে সিনাগগটির ভেতরে চারজন অবস্থান করছেন বলে মনে করা হচ্ছে। এর ভেতরে একজন ইহুদি পণ্ডিতও রয়েছেন।
এদিকে হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি টুইটারে জানিয়েছেন, ইহুদিদের উপাসনালয়ে অবস্থান নিয়ে চারজনকে জিম্মি করার ঘটনাটি মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে জানানো হয়েছে।
এছাড়া টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় কোলেভিলের পুলিশ জানিয়েছে, সিনাগগে পুলিশের অভিযান ও তৎপরতা এখনও চলছে। তাই সিনাগগের পার্শ্ববর্তী এলাকা এড়িয়ে চলতে সাধারণ মানুষের প্রতি আহ্বানও জানিয়েছে তারা।
অন্যদিকে স্থানীয় পুলিশের বরাত দিয়ে বার্তাসংস্থা এএফপি জানিয়েছে, সিনাগগের ভেতরে জিম্মি অবস্থায় থাকা একজনকে ছেড়ে দিয়েছে অভিযুক্ত সশস্ত্র ব্যক্তি। সূত্র : বিবিসি



 

Show all comments
  • Bojlur Rahaman ১৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১১:১৭ এএম says : 0
    CIA is a conspiracy intelligence agency and RAW is a conspiracy research and wing.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ