Inqilab Logo

সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

স্বস্তি ফিরছে ঢাবি ছাত্রলীগে

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৪ এএম

দীর্ঘদিনের বন্ধাত্ব ঘুচে ঝুলে থাকা ভাগ্যের পরীক্ষা হতে যাচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের। দীর্ঘদিন ধরে হল সম্মেলনের জন্য মুখিয়ে থাকা নেতাকর্মীদের মাঝে ফিরছে স্বস্তি। আগামী ৩০ জানুয়ারি হতে যাচ্ছে বহুল প্রত্যাশিত ঢাবি ছাত্রলীগের হল সম্মেলন।

গত শনিবার ছাত্রলীগ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন স্বাক্ষরিত একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল হল শাখা ছাত্রলীগের সমন্বিত ‹হল সম্মেলন ২০২১› আগামী ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে সম্মেলনকে কেন্দ্র করে নেতাকর্মীদের মাঝে বিরাজ করছে উচ্ছ্বাস। উচ্ছ্বাসের সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সম্মেলনের খবর ছড়িয়ে দিচ্ছেন নেতাকর্মীরা।

হাজী মুহম্মদ মুহসীন হল ছাত্রলীগের পদপ্রত্যাশী মো. হোসাইন বলেন, দীর্ঘদিন পর হল সম্মেলন হচ্ছে, সবার মাঝে একটা স্বস্তিবোধ কাজ করছে। দীর্ঘদিনের ঝুলে থাকা ভাগ্যের পরীক্ষা হতে যাচ্ছে। এখন এটা সবার জন্য কল্যাণ বয়ে আনুক এই প্রত্যাশা।

গত বুধবার বিভিন্ন হলের পদপ্রার্থীরা জানুয়ারির মধ্যেই হল কমিটি না দিলে ধর্মঘট করে ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যকে ঢাবি ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণার হুঁশিয়ারি দেন। এ সময় জানুয়ারির মধ্যে হল কমিটি দেওয়ার আলটিমেটাম দেন তারা। এরই মধ্যে সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করলো ঢাবি ছাত্রলীগ।

এর আগে গত বছরের অক্টোবরে দুই দফায় হল কমিটির জন্য সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করলেও শেষে তা পরিণতি পায়নি। তাই ফের সম্মেলনের তারিখ পেছানোর সম্ভাবনা জানতে চাইলে ঢাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, এর আগে আমাদের হল সম্মেলনের প্রস্তুতির কথা বলা হয়েছিল। ২৮ নভেম্বর হল সম্মেলনের তারিখ চূড়ান্ত করে বলা হয়নি। কিন্তু এবারে অফিশিয়ালি সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। আমরা করোনা মহামারির বিষয়টি মাথায় রেখেই আগাচ্ছি। উৎসবমুখর পরিবেশেই আমাদের সম্মেলন হবে। এবং একই দিনে ১৮টি হলেরই সম্মেলন হবে। যদি বড় কোন আয়োজনের মাধ্যমে সম্মেলন না দেওয়া যায় তবুও যেন নির্দিষ্ট কোনো জায়গায় বা অডিটোরিয়ামে দ্রুততম সময়ের মধ্যে সম্মেলন দেওয়া যায় সে পরিকল্পনাও আমাদের রয়েছে। সম্মেলনের কতদিন পর কমিটি গঠন করা হবে জানতে চাইলে সাদ্দাম হোসেন বলেন, আমরা চেষ্টা করছি সম্মেলনের দিনই কমিটি গঠন করার। কিন্তু সেদিনই যদি সম্ভব না হয় তাহলে পরবর্তী দু-একদিনের মধ্যেই হবে।
সর্বশেষ ২০১৬ সালের নভেম্বরে সম্মেলন ও ডিসেম্বরে গঠন করা হয় ছাত্রলীগের ঢাবি শাখার হল কমিটি। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী যার মেয়াদ শেষ হয় ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে। কিন্তু কেন্দ্রীয় নেতাদের স্বদিচ্ছার অভাবে পাঁচ বছর পার হলেও হয়নি নতুন কমিটি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ