Inqilab Logo

সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

চট্টগ্রামে করোনায় ৩ জনের মৃত্যু শনাক্ত ৭৪২

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৯:০৮ এএম

চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে। নতুন করে আরও ৭৪২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন তিন জন। করোনা শনাক্তের হার ২৫ দশমিক ৭৩ শতাংশ। সোমবার সকালে চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। এর আগে রোববার চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন ৫৫০ জন।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াস চৌধুরী বলেন, চট্টগ্রামের ১৩টি ল্যাবে দুই হাজার ৮৮৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৭৪২ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৫৯৭ জনই চট্টগ্রাম নগরীর বাসিন্দা। বাকি ১৪৫ জনের মধ্যে লোহাগাড়ায় ৪, সাতকানিয়ায় ১১, বাঁশখালীতে ২, আনোয়ারায় ৫, চন্দনাইশে ১১, পটিয়াতে ২৬, বোয়ালখালীতে ৮, রাঙ্গুনিয়ায় ২০, কর্ণফুলীতে ১, রাউজানে ১৫, হাটহাজারীতে ১১, ফটিকছড়িতে ১২, মিরসরাইয়ে ৩, সন্দ্বীপে ৩ ও সীতাকুণ্ড উপজেলার ১৩ জন রয়েছেন। চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৫ হাজার ৭১৯ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে নগরীর বাসিন্দা ৭৬ হাজার ৭৯১ জন। বাকি ২৮ হাজার ৯২৮ জন বিভিন্ন উপজেলার। করোনায় আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত মোট ১ হাজার ৩৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৭২৮ জন নগরীর। আর বিভিন্ন উপজেলায় মৃত্যু হয়েছে ৬১০ জনের। ২০২০ সালের ৩ এপ্রিল চট্টগ্রামে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ৯ এপ্রিল ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে প্রথম কোনো ব্যক্তির মৃত্যু হয়।



 

Show all comments
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১০:৩৭ এএম says : 0
    মহামারীতে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন পৃথিবী ভয়ানক অসুস্থ মৃত্যু অদ‍্যকোটি ছাড়িয়ে যাচ্ছে দ্রত গতিতে কোথায় গিয়ে শেষ হবে বলা মুশকিল। দৈনিক আক্রান্তের নতুন রেকর্ড হচ্ছে। আলামত ঠিক মনে হচ্ছে না। শারীরিক ভাবে সুস্থ আছি। করোনা পরিক্ষায় প্রজেটিভ হাজারো হাজার আক্রান্ত মানুষ চিকিৎসা সেবা শারীরিক দুরত্ব স্বাস্থ্যবিধি মানছেনা। শৃংখলা নাই আমাদের মাঝে সরকারের কঠোর বিধি নিষেধাজ্ঞা জরুরী। আইন শৃংখলা বাহিনী কঠোরভাবে জনগণের জান মালের হেফাজতে দায়িত্ব নিতে হবে। পাশ্ববর্তী ভারতের অবস্থা ভয়াবহ হচ্ছে কলকাতায় কঠোর বিধি নিষেধাজ্ঞা চলছে। এই কঠিন পরিস্থিতিতে মানুষের মাঝে শৃংখলা ফিরিয়ে আনতে জরুরী কিছু কঠোর সিদ্ধান্ত প্রযোজন। মাক্স বাধ্যতামূলক না পড়লে ৫০০টাকা জরিমানা ঘোষণা দিতেই হবে। কঠোরভাবে জনসাধারণের ভিড়ের স্থানগুলো চিহ্নিত করে বাজার মার্কেট সভা সমাবেশ আদালত প্রাঙ্গন সামাজিক বিয়ের অনুষ্টান সহ শৃংখলার মাঝে আনা জরুরী অদৃশ্য ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করা যায়না প্রযোজন কঠোর শৃংখলা। আর শৃংখলার জন্যেই প্রযোছন কঠোর শাসন। এটির দায়িত্ব মেট্রোপলিটন পুলিশের চট্টগ্রামে বন্দরনগরী বিশালসংখ্যক জনগোষ্ঠী বাংলাদেশের অর্থনীতির লাইভ লাইন বানিজ‍্যিক রাজধানীর নিরাপত্তা জন্যে কঠোর বিধি নিষেধাজ্ঞা শৃংখলা নেই। মানুষের হিতাহিত জ্ঞান শূণ্য হয়ে যাচ্ছে কেন? যে পরিস্থিতি সৃষ্টি হচ্ছে ভাইরাসের এই কঠিন সময়ে সকলস্তরের মানুষের নিজ নিজ দায়িত্বশীল আচরণ করছে। হাসি টাট্টা মশকরা উদাসীনতা মাঝে মানুষ সরকারের বিলিয়ন ডলারের কর্মসূচি লক্ষকোটি প্রনোদনা দেশ জাতির কল‍্যানে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে যাচ্ছেন। পরিকল্পনার ভয়াবহ অভাব কডিট পরিক্ষার লাইন বিশৃঙ্খলা ভাল খারাপ সবাই আক্রান্ত হচ্ছেন। এই দায় প্রশাসনের নিয়ম শৃংখলা।এই ভাইরাসের টিকার লাইন হাজারো মা বোনের রাস্তার উপরেই সারাদিনব্যাপী দাঁড়িয়ে থেকে চরম বিশৃঙ্খলা মাঝেই টিকা নিতে বাধ্য হচ্ছে। এর দায়ী কে? কেও নেই দেখার শৃংখলার ছাত্র ছাত্রীদের কেন যার যার স্কুল কম্পাউন্ডে টিকার ব‍্যবস্থা টিকার শৃংখলা হয়নি? কেন নগরীর হাজার হাজারো মা বোন সারাদিনব্যাপী লাইনে দাঁড়িয়ে অসহনীয় কষ্টের মাঝেই টিকা নিবেন। টিকা সহজ প্রাপ্তির কেন উপযুক্ত পরিকল্পনা দেখা যাচ্ছেনা। এটিও রাষ্ট্রের নির্বাহী প্রধান কে শিখিয়ে দিতে হবে? আল্লাহ্ একমাত্র হেফাজত কারী। সবাই কে হেফাজতে থাকুন যার নিরাপত্তাব্যবস্থা সম্পর্কে সচেতন থাকাটাই জরুরী। দেশের বিশালাকার জনগোষ্ঠী আমরাই আত্মীয় পরায়ন জাতি এখানে যদি ভাইরাসের ভয়াবহতা আমেরিকার মত হয় কিয়ামতের মত পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে। লাশের পাহাড় হবে শৃংখলা ভেঙ্গে পড়বে। ইত্যাদি ইত্যাদির কারণে সময়ের গুরুত্ব না দিল সব কিছু ঠিক আছে এভাবেই প্রশাসন দায়িত্বজ্ঞানহীন পরিস্থিতির জরুরী হস্তক্ষেপে যাবেনা। তা হয় না। রাষ্ট্রের নির্বাহী প্রধান দেশের স্বার্থেই নির্দেশনা জরুরী। চারিদিকে পরিস্থিতি শুভ নয় মহান আল্লাহর দরবারে প্রার্থনা দেশের সবাই কে হেফাজত করুন। আমিন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ