Inqilab Logo

রোববার, ২২ মে ২০২২, ০৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

কুমিল্লার হয়ে রোডসের নতুন অধ্যায়!

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ২:৩২ পিএম | আপডেট : ৮:৫৪ পিএম, ১৭ জানুয়ারি, ২০২২

২০১৯ সালে ইংল্যান্ডে হওয়া বিশ্বকাপের পর বাংলাদেশের তৎকালীন কোচ স্টিভ রোডসকে বরখাস্ত করা হয়। মূলত ওই বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের ভরাডুবি পরই তাকে দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দেয়া হয়েছিল। তখন মনে হয়েছিল বুঝি বাংলাদেশে রোডস অধ্যায় শেষ হয়ে গেছে। কিন্তু না, ফের বাংলাদেশে এসেছেন এই ইংলিশ কোচ। তবে এবার জাতীয় দলের কোচ নয়, তিনি এসেছেন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের পরামর্শক হিসেবে কাজ করতে। পরামর্শক পদেই তাকে নিয়োগ দিয়েছে এই ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।

বিপিএলে স্থানীয় কোচদের মধ্যে নিঃসন্দেহে সেরা মোহাম্মদ সালাউদ্দিন। তার অধীনে এর আগে শিরোপাও জিতেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। জানা গেছে এবারও শিরোপার জয়ের লক্ষ্যে সালাউদ্দিনের ওপর আস্থা রেখেছে কুমিল্লা। তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে আরেকটি নাম। যিনি স্টিভ রোডস। নিজেদের কোচিং স্টাফকে আরও সমৃদ্ধ করতে, খেলোয়াড়দের কাছ থেকে ভালো পারফরম্যান্স বের করে আনতে পরামর্শক হিসেবে রোডসকেই বেছে নিয়েছে কুমিল্লা। দলটির হয়ে কাজ করতে ইতোমধ্যে ঢাকায় এসেছেন রোডস। শুরু করেছেন নিজের নতুন অধ্যায়! ঢাকায় পৌঁছেই সোমবার মাঠে নেমে পড়েন স্টিভ রোডস। জানা গেছে মূলত: কোচ হিসেবে নিয়োগ দিতেই রোডসের সঙ্গে চুক্তি করেছিল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। কিন্তু পরে সালাউদ্দিনকে পেয়ে যাওয়ায় রোডসকে পরামর্শক হিসেবেই কাজে লাগাচ্ছে দলটি। অর্থাৎ কুমল্লাকে বিপিএল শিরোপা এনে দেয়ার জন্য দুই কোচ একসঙ্গে কাজ করবেন। সোমবার সকালে মিরপুর একাডেমি মাঠে দলের অনুশীলনে এসে হাজির হন কুমিল্লার পরামর্শক স্টিভ রোডস। সালাউদ্দিনের সঙ্গে মিলে তাকে দেখা গেছে ক্রিকেটারদের অনুশীলন করাতে। সালাউদ্দিনের সঙ্গে নানা পরামর্শ করতেও দেখা যায় রোডসকে। কুমিল্লার প্রধান কোচ সালাউদ্দিন তো সাফ জানিয়েই দিলেন, রোডসের কাছ থেকে শিখতে আপত্তি নেই তার। বরং, এ সুযোগে রোডসের কাছ থেকে তিনিও কিছু শিখে নিতে পারবেন। যা পরবর্তীতে কাজে লাগাবেন। রোডসের কারণে তার দল উপকৃত হবে বলেই মনে করেন সালাউদ্দিন।

তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয়, এটা খারাপ কিছু না। কারণ উনি অনেক অভিজ্ঞ কোচ। বাংলাদেশ জাতীয় দলেরও কোচ ছিলেন। বাংলাদেশের অন্যতম সফল কোচও ছিলেন তিনিই। তার মাথা থেকে অনেক ভালো কিছু আসতে পারে।’

সালাউদ্দিন আরও বলেন, ‘রোডস যেহেতু আমাদের পরামর্শক হিসেবে এসেছে। আমিও মনে হয় তার কাছ থেকে অনেক কিছু শিখতে পারবো। যদি কারও কাছ থেকে কিছু নেওয়া যায়, তবে মন্দ কী!' ২০১৮ সালের জুনে বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন রোডস। তার অধীনেই প্রথমবারের মতো ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টে শিরোপা জেতে বাংলাদেশ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: স্টিভ রোডস
আরও পড়ুন