Inqilab Logo

শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

৩ ডাকাত গ্রেফতার

পাথরঘাটা (বরগুনা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৮ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৩ এএম

পাথরঘাটার গহরপুর গ্রামে সংগঠিত ডাকাতির ঘটনায় আরো দুই জন আটক। জেলা পুলিশ সুপারের ঘটনাস্থল পরিদর্শন।এই নিয়ে ডাকাতির অভিযোগে মোট তিনজনকে গ্রেফতার করল পাথরঘাটা থানা পুলিশ।
আটককৃত ডাকাতরা হল- সুজন (২৮) পিতা-লতিফ গাজী, গ্রাম বুখাই চরমোনাই, বরিশাল। মাছুম (৪৬), পিতা-আজহার হাওলাদার. গ্রাম-চন্দ্রমোহন, বরিশাল। মিজান (৩৪), পিতা-আলতাফ হোসেন, গ্রাম-বড়ইতলা, থানা পাথরঘাটা, বরগুনা।
এ উপলক্ষে গতকার সোমবার দুপুর ১২টায় গ্রেফতারকৃত আসামিদের সাংবাদিকদের সামনে আনুষ্ঠানিকভাবে হাজির করে পুলিশ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার মো. জাহাঙ্গীর মল্লিক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পাথরঘাটা সার্কেল) মো. তোফায়েল আহমেদ, পাথরঘাটা থানা ওসি মো. আবুল বাশার এবং পাথরঘাটার গণমাধ্যমকর্মীগণ।
বরগুনা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পাথরঘাটা সার্কেল) মো. তোফায়েল আহমেদ জানান, ডাকাতি করতে এসে জনতার হাতে ধৃত ডাকাতের দেয়া তথ্যমতে এবং অধিকতর তদন্ত করে আমরা বাকি দুই ডাকাতকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই।
উল্লেখ্য, গত রোববার ভোর রাত সাড়ে তিনটার দিকে পাথরঘাটা সদর ইউনিয়নের গহরপুর গ্রামের খান বাড়িতে এই দুঃসাহসিক ডাকাতির ঘটনাটি ঘটে। এলাকাবাসি ডাকাত দলের সুজন (২৮) নামের ১ ডাকাতকে আটক করতে সক্ষম হয়। তখন সে জানায় তার বাড়ি রাজাপুর উপজেলার চারাপাড়া এলাকায় এবং তার বাবার নাম মোজাম্মেল হক। সুজনের দেয়া তথ্যসহ নানাভাবে তদন্ত করে ২ ডাকাতকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। ডাকাতির ঘটনায় গুরুতর আহত হন সোহেল ও তার বড় ভাই রাসেল।
এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পাথরঘাটা সার্কেল) মো. তোফায়েল আহমেদ বলেন, আমরা ধৃত ডাকাতের দেয়া তথ্যসহ নানাভাবে যাচাই-বাছাই এবং তদন্ত করে বাকি দুই ডাকাতকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন