Inqilab Logo

শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৫ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

প্রতিশোধের অঙ্গীকার আমিরাতের, সংহতি প্রকাশ সউদীর

আবু ধাবিতে ড্রোন হামলা, ২ ভারতীয় ১ পাকিস্তানি নিহত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০১ এএম

আবু ধাবিতে ড্রোন হামলার জেরে তিনটি তেলের ট্যাঙ্কারে বিস্ফোরণ ঘটেছে এবং তিনজন নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে দুইজন ভারতীয় ও একজন পাকিস্তানি। আমিরাতের সরকারি সংবাদসংস্থা জানিয়েছে, ড্রোন থেকে বোমা ফেলা হয়। যার জেরে তিনটি তেলের ট্যাঙ্কারে আগুন লাগে। তার জেরে আবুধাবি বিমানবন্দরের এক্সটেনশনেও আগুন ছড়ায়। ইয়েমেনে ইরানের মদতপুষ্ট হুতি বিদ্রোহীরা এই হামলার দায় স্বীকার করেছে। অন্যদিকে এ ঘটনায় প্রতিশোধ নেওয়ার অঙ্গীকার করেছে আমিরাতি কর্তৃপক্ষ।

রিয়াদের নেতৃত্বাধীন যে সামরিক জোট ইয়েমেনে হুছি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে হামলা চালিয়ে আসছে, সংযুক্ত আরব আমিরাতও সেই জোটের সদস্য। এ জোট ইয়েমেনে যে কোনো মূল্যে হুতি বিদ্রোহীদের পরাস্ত করতে চায়। আমিরাতের কূটনীতিক আনোয়ার গার্গাশও জানিয়েছেন, হুতি বিদ্রোহীরা এ কাজ করেছে। সাংবাদিক সম্মেলনে হুতির সেনা মুখপাত্র জানিয়েছেন, আবু ধাবি ও দুবাই বিমানবন্দর এবং তেল পরিশোধনাগার লক্ষ্য করে তারা ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করেছে। তবে এ দাবির পক্ষে কোনো তথ্যপ্রমাণ দেওয়া হয়নি।

পুলিশ জানিয়েছে, তাদের তদন্ত অনুযায়ী ড্রোন থেকেই হামলা চালানো হয়েছিল। তেল পরিশোধনাগার ও বিমানবন্দর লক্ষ্য করে হামলা চালানো হয়। তবে তারা ক্ষেপণাস্ত্র হামলার উল্লেখ করেনি। তারা জানিয়েছে, ড্রোনের মতো ছোট উড়ন্ত জিনিস দেখতে পাওয়া গেছে। হুতি এর আগে সউদী আরবেও একাধিকবার ড্রোন হামলা করেছে।

সোমবার সন্ধ্যায় মার্কিন সেক্রেটারি অফ স্টেট অ্যান্টনি ব্লিংকেন আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ বিন জায়েদকে ফোন করে এই ঘটনার নিন্দা করেছেন। আমিরাতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একটি বিবৃতিতে জানিয়েছে, আমিরাতের জমিতে হুতি বিদ্রোহীরা যে আক্রমণ চালিয়েছে, তা কোনোভাবেই মানা যায় না। তারা এজন্য শাস্তি পাবে। ইয়েমেনে হুতি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সউদী আরবের নেতৃত্বাধীন জোটের লড়াই চলছে। সেই জোটে আমিরাতও আছে।

আবুধাবি পুলিশ জানিয়েছে, বিমানবন্দরে সামান্য আগুন লাগে। নির্মীয়মান এয়ারপোর্ট এক্সটেনশনে এ আগুন লেগেছিল। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, তিনটি তেলের ট্যাঙ্কারে আলাদা আলাদা বিস্ফোরণ হয়। এসব ট্যাঙ্কার রাষ্ট্রায়ত্ত্ব তেল কোম্পানির গুদামের কাছে দাঁড়িয়েছিল। প্রাথমিক তদন্তে দেখা গেছে, ড্রোনের মতো ছোট উড়ন্ত জিনিস থেকে হামলা হয়েছে। আমিরাতের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ডব্লিউএএম জানিয়েছে, তেল প্রতিষ্ঠান অ্যাডনক এর গুদামের কাছে মুসাফা শিল্প এলাকায় তিনটি ট্রাক বিস্ফোরিত হলে তিন জন নিহত এবং আরও ছয় জন আহত হয়েছে। নিহতদের দুই জন ভারতীয় এবং একজন পাকিস্তানি নাগরিক। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ফুটেজে দেখা গেছে, মুসাফা এলাকা থেকে কালো ধোঁয়া উড়ছে।
আবু ধাবি পুলিশের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘প্রাথমিক তদন্তে উভয় পাশে ছোট প্লেনের অংশ পাওয়া গেছে, যা ড্রোনের হতে পারে, এ থেকে বিস্ফোরণ ঘটতে পারে।’ তবে ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বড় ধরনের কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

আমিরাতের প্রতি পূর্ণ সংহতির অঙ্গীকার সউদীর
সউদী পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স ফয়সাল বিন ফারহান গত সোমবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) সাথে সউদী আরবের পূর্ণ সংহতি পুনর্ব্যক্ত করেছেন। তিনি বলেছেন, কিংডম তার নিরাপত্তা এবং স্থিতিশীলতাকে হুমকির মুখে ফেলতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের পাশে সম্পূর্ণভাবে দাঁড়াবে। তিনি তার সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রতিপক্ষ শেখ আবদুল্লাহ বিন জায়েদ আল-নাহিয়ানের সাথে একটি ফোন কলে বলেন, ‘ইউএই এবং সউদী আরবের নিরাপত্তা অবিভাজ্য’।

সউদী প্রেস এজেন্সি জানিয়েছে, ফোনে যুবরাজ ফয়সাল সংযুক্ত আরব আমিরাতের মাটিতে বেসামরিক এলাকা এবং স্থাপনাগুলোতে সন্ত্রাসী হুছি মিলিশিয়াদের পরিচালিত সন্ত্রাসী হামলায় রাজতন্ত্রের তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছেন। মন্ত্রী এই কাপুরুষোচিত সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে নিহতদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি সংযুক্ত আরব আমিরাতের সরকার ও জনগণের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। তিনি হামলায় আহত সকলের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন। সূত্র : ডব্লিউএএম, সউদী গেজেট, এএফপি, এপি, রয়টার্স।



 

Show all comments
  • রকিবুল ইসলাম ১৯ জানুয়ারি, ২০২২, ৩:৩৯ এএম says : 0
    কবে যে মুসলমানদের মধ্যে এই দ্বন্ধ শেষ হবে ?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ